কক্সবাজারের পেকুয়ায় আবার স্কুলে ঢুকে এলমুন্নাহার (২০) নামের এক শিক্ষিকাকে এক ঘুষিতে নাক ফাটালেন এক যুবক। পরে স্থানীয়রা ওই শিক্ষিকাকে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সোমবার (৪ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের নতুনঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সে নতুনঘোনাস্থ ব্র্যাক স্কুলের শিক্ষিকা ও একই এলাকার রফিক আহমদ বাদশাহর মেয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শী আবদুল জব্বার ও সিফাত জানায়, স্কুলে বাপ্পি ও হুমায়ুন নামের দুই শিক্ষার্থী দুষ্টামি করছিল। এ নিয়ে দুই শিক্ষার্থীর মায়ের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এ সময় একই এলাকার আবদুল হকের ছেলে বেলাল উদ্দিন মোটরসাইকেল করে বাড়িতে যাচ্ছিলেন।

‘দুই শিক্ষার্থীর মায়ের বাগবিতণ্ডা দেখে বেলাল উদ্দিন চড়াও হন। এ সময় স্কুলের মধ্যে ঢুকে বেলাল উদ্দিন শিক্ষিকা এলমুন্নাহার এ্যালিকে শারীরিক লাঞ্ছিত করে ও তার নাকে ঘুষি মারেন।’ যোগ করেন তারা।

শিক্ষিকা এলমুন্নাহার এ্যালি জানায়, ‘দুই শিক্ষার্থীর দুষ্টামি করার জেরে তাদের মায়েদের মধ্য ঝগড়া হয়। বেলাল হঠাৎ স্কুলে ঢুকে কোন কিছু না জেনে আমাকে লাথি-ঘুষি মারতে থাকেন। ঘুষি মেরে আমার নাক ফেটে দেয়।’

রাজাখালী ইউনিয়নের সদস্য মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি জেনেছি। তারা পরস্পর আত্মীয়।