জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের বলেছেন, ‘বাংলাদেশ যেন অব্যবস্থাপনার স্বর্গরাজ্য। মনে হচ্ছে, জরিপে অব্যবস্থাপনায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশ। প্রতিদিনই অবহেলা আর অব্যবস্থাপনায় দেশে অসংখ্য মায়ের কোল খালি হবে এটাই যেন স্বাভাবিক হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

সোমবার উত্তরায় বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার চাপায় পাঁচ জন ও পুরান ঢাকায় অগ্নিকাণ্ডে ছয় জনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে মঙ্গলবার এক শোকবার্তায় এসব কথা বলেন তিনি।

শোকবার্তায় ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘এমন হৃদয়বিদারক মৃত্যু মেনে নেওয়া যায় না। ভারী ও ঝুঁকিপূর্ণ কর্ম এলাকা সংরক্ষিত থাকার কথা। কার অবহেলায় উত্তরায় ঝুঁকিপূর্ণ স্থানটি সংরক্ষণ করা হয়নি তা খতিয়ে দেখে, দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। অপরদিকে, প্রতিবারই অগ্নিদগ্ধ হয়ে অসংখ্য মানুষের করুণ মৃত্যু হচ্ছে। গতকালও ছয়টি তাজা প্রাণ আগুনে পুড়ে মারা গেল, কারও যেন দায় নেই।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘দেশে দুর্ঘটনা এখন দৈনন্দিন ঘটনায় পরিণত হয়েছে, তা সড়ক পথে হোক, নৌপথে হোক কিংবা শিল্প কারখানায় হোক অথবা যেকোনো জনসমাগম স্থলেই হোক। এভাবে চলতে পারে না, এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। দুটি দুর্ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করতে হবে।’ কোনো দায়মুক্তি নয়, দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সোমবার উত্তরায় বিআরটি প্রকল্পের গার্ডার চাপায় পাঁচ জন ও পুরান ঢাকায় অগ্নিকাণ্ডে ছয় জনের মৃত্যুতে একইভাবে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টি মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মুজিবুল হক চুন্নু এমপি।