আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগস্ট মাস এলেই ষড়যন্ত্রকারীরা বিচলিত হয়ে ওঠে। কারণ, তখন তাদের ষড়যন্ত্রের মুখচ্ছবি ভেসে ওঠে।

তিনি বলেন, বিএনপি রাজনীতি করে ক্ষমতার জন্য আর আওয়ামী লীগ রাজনীতি করে জনগণের জন্য। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে, নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে পরাজিত করা সম্ভব না। তাই তাঁকে সরিয়ে দিতে হত্যার বিকল্প করেছিল বিএনপি। তবে এবার আর পার পাবে না, আওয়ামী লীগ সতর্ক আছে।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ সচিবালয় প্রাঙ্গণে সচিবালয় কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় আজ মঙ্গলবার বিকেলে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কে কোথায় ষড়যন্ত্র করছে, বিদেশে কী ষড়যন্ত্র হচ্ছে- সব খবর আমাদের কাছে আছে।আমরা এবার সতর্ক। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, রাজনীতি করবে না বলে মুচলেকা দিয়ে বিদেশে বসে টেমস নদীর তীরে কলকাঠি নাড়ছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। সেখানে বসে শ্লোগান দিচ্ছে, আর বিএনপি মহাসচিব দেশে শ্লোগান দিচ্ছে। 

আগস্ট মাস হলো বিএনপির চক্রান্তের মাস- এমনটা দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সারা দুনিয়ার ছবি চোখে ভাসে না, শুধু বাংলাদেশের ছবি চোখে ভাসে বিএনপির। 

নির্বাচনের দরকার নেই, দরকার সরকার পতনের- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা আছি রাজপথে, সকল অশুভ শক্তিকে মোকাবিলা করা হবে। সকল ষড়যন্ত্রের জবাব দেওয়া হবে। 

বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ মঈনুল ইসলামের সভাপতিত্বে শোক দিবসের আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একে এম এনামুল হক শামীম এবং বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য পরিষদের মহাসচিব মো. রুহুল আমিনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।