ছেলে সাদসহ দু-এক নেতার কাছে জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ জিম্মি হয়ে পড়েছেন বলে দাবি করেছেন দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক। তিনি বলেছেন, রওশন এরশাদ পার্টির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছায় কিছু করছেন বলে আমি বিশ্বাস করি না।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন মুজিবুল হক।

তিনি বলেন, বুধবার রওশন এরশাদের যে চিঠি ফেসুবকে ভাইরাল হয়েছে, সেটি আমরা আমলেই নিচ্ছি না। ওই চিঠিতে রওশন এরশাদ পার্টি থেকে অব্যাহতি, বহিস্কার ও বাদ দেওয়া সবাইকে অন্তর্ভুক্তির আদেশ দেন।

জাপা মহাসচিব বলেন, সাবেক মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা পার্টির গঠনতন্ত্রের ২০ ধারার একজন সুবিধাভোগী। তাঁর মুখে গঠনতন্ত্রের ধারাটি নিয়ে বক্তব্য স্ববিরোধিতা। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এই ধারা বলেই এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে রাঙ্গাকে মহাসচিব করেছিলেন। তখন তিনি তা মেনে নিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, জি এম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ। দলে কোনো বিভেদ নেই। কোনো ষড়যন্ত্রই দলের ঐক্যে ফাটল ধরাতে পারবে না।