আগামী জাতীয় নির্বাচন ঘিরে সহিংসতা এড়াতে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সংলাপে সহযোগিতা করতে জাতিসংঘ প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে সংস্থাটির আবাসিক সমন্বয়কারী গোয়েন লুইস। গতকাল শুক্রবার বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

গোয়েন লুইস বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে যতবেশি সংলাপ হবে, সংঘাত ততই কমে আসবে। নির্বাচনী সহিংসতা এড়াতে দরকার রাজনৈতিক সংলাপ।

তাই এটি আয়োজনে সহযোগিতা করতে জাতিসংঘ প্রস্তুত রয়েছে। তবে সিদ্ধান্ত জনগণের। তিনি রাজনৈতিক দলগুলোকে স্থিতিশীলতা বজায় রাখার আহ্বান জানান।

আগামী নির্বাচন পর্যবেক্ষণে জাতিসংঘের কোনো প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসবে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সামনের নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আমাদের ম্যান্ডেট নেই। কারণ বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এমন কিছু চাওয়া হয়নি। মনে রাখতে হবে, নির্দিষ্ট ইস্যু কিংবা পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা পরিষদের সম্মতিতে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করা হয়। বিরোধী দল চাইলে হবে না, সরকার চাইলে প্রতিনিধি আসতে পারে।

সর্বশেষ ২০১৩ সালে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বড় রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ করতে এসেছিলেন সংস্থাটির তৎকালীন সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকো।