নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ছাত্রদল সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলের ওপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ হামলার জন্য ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের দায়ী করেছে ছাত্রদল।

বুধবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে উপজেলার কৃষ্ণপুরা এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদককে বহনকারী গাড়িটি ভাঙচুর করা হয়। তাদের গাড়িটিকে আটকে রাখা হয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

হামলায় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

ছাত্রদল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের গাড়িতে থাকা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের কৃষ্ণপুরা আওয়ামী লীগের অফিসের কাছাকাছি এই হামলার ঘটনা ঘটে। ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা এই হামলা চালান বলে অভিযোগ করেন তিনি।

ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদককে বহনকারী গাড়ি। ছবি- সমকাল

তিনি বলেন, গাড়ির ড্রাইভারসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে আড়াইহাজার পৌরসভা বিএনপির সভাপতি মাহমুদ উল্লাহ জানান, আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে এসেছি। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করছি।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার জানান, এ ধরনের কোনো অভিযোগ পাইনি। খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের গুলিতে নিহত ছাত্রদল নেতা নয়নের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদানে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়া গিয়েছিলেন ছাত্রদলের সভাপতি-সম্পাদক। নয়নের পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে ঢাকায় ফেরার পথে তাদের ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটলো।