রাজধানীর গুলিস্তানে বিআরটিসি কাউন্টারের পাশে ভয়াবহ বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মঙ্গলবার এক শোকবার্তায় বলেন, সারাদেশে একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা রহস্যজনক। 

তিনি বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে গুলিস্তানে বিআরটিসির বাস কাউন্টারের পাশে সাততলা ভবনে বিস্ফোরণের ঘটনায় মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত ১৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও অন্তত ১০০ জন আহত হয়েছেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এর আগে গত রবিবার ঢাকার সায়েন্সল্যাব এলাকায় একটি ভবনে বিস্ফোরণে তিনজন নিহত হয়। তার আগে গত শনিবার চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সীমা অক্সিজেন লিমিটেডে বিস্ফোরণ ও আগুন লেগে এ পর্যন্ত সাত জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অনেকে। গত কয়েকদিনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২৫ জনের বেশি লোক মৃত্যুবরণ করেছে। এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ও বহু হতাহতের ঘটনায় দেশবাসীর মতো আমিও গভীরভাবে শোকাহত। 

তিনি আরও বলেন, একই সঙ্গে এসব অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সরকারের কোনো গাফিলতি আছে কি না তাও খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। সবগুলো অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার ধরন প্রায় একই রকম হওয়ায় জনমনে সন্দেহ বাড়ছে। এসব ঘটনা পরিকল্পিত কি না তাও খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। আমি মনে করি, এর পিছনে সরকারের গাফিলতি ও ব্যর্থতাও রয়েছে। এ সরকারের আমলে মানুষের জীবনের কোনো মূল্য নেই। তাই একের পর এক ঘটনা ঘটলেও সরকার ভয়াবহ প্রাণহানির ঘটনা ঠেকাতে পারছে না। আমি সকল অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি করছি। একই সাথে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ও আহতদের সুচিকিৎসার দাবি জানাচ্ছি। 

বিএনপি মহাসচিব নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং আহতদের আশু সুস্থতা কামনা করেন। তিনি অগ্নিকাণ্ডে হতাহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।