চট্টগ্রামে শনিবার সমাবেশের অনুমতি পেল বিএনপি

প্রকাশ: ১৯ জুলাই ২০১৯      

চট্টগ্রাম ব্যুরো

শেষ পর্যন্ত শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামে বিভাগীয় সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। দিনের আলোতে সমাবেশ শেষ করাসহ কয়েকটি শর্তে নগরীর নাসিমন ভবনের মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এ অনুমতি দিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ। এর আগে দুপুরের দিকে মৌখিকভাবে গ্রিন সিগন্যাল পাওয়ার পর কাজে নেমে পড়েন দলের নেতাকর্মীরা। শনিবার দুপুর ২টায় সমাবেশের কার্যক্রম শুরু করবে বিএনপি।

নগরীর লালদীঘি মাঠ সংলগ্ন জেলা পরিষদ চত্বর কিংবা কাজীর দেউড়ি মোড়ে সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি। অবশ্য যে স্থানে অনুমতি মিলেছে সেটি কাজীর দেউড়ি মোড়ের অদূরেই।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে সারাদেশে বিভাগীয় পর্যায়ে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয় বিএনপি। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বরিশালে প্রথম বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। চট্টগ্রামে আজ দ্বিতীয় সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর ২৫ জুলাই খুলনায় সমাবেশ করার কথা রয়েছে। বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ সিনিয়র নেতারা। শুক্রবার বিকেলে গুলশানে খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে চট্টগ্রামের সমাবেশ সফল করার বিষয়ে আলোচনা হয় বলে জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির।

চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর, দক্ষিণ, কপবাজার, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, ফেনী, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুর নিয়ে বিএনপি চট্টগ্রাম সাংগঠনিক জেলা। বিপুল লোকসমাগম ঘটাতে চট্টগ্রাম মহানগরে দফায় দফায় প্রস্তুতিমূলক সভা করেছে দলটি। এসব সভায় দলের কেন্দ্রীয়, বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের সিনিয়র নেতারা অংশ নেন। এ ছাড়া সমাবেশের তারিখ ঘোষণার পর থেকে বিভাগের এই ১০ সাংগঠনিক জেলায়ও পৃথকভাবে প্রস্তুতিমূলক সভা-সমাবেশের আয়োজন করা হয়। সমাবেশকে ঘিরে গতকাল দিনভর মুখরিত ছিল চট্টগ্রাম নগরীর নাসমিন ভবনের মহানগর বিএনপি কার্যালয়। রাতেই সমাবেশের জন্য মঞ্চ তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন নগর বিএনপির উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. ইদ্রিস।

নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর সমকালকে বলেন, দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কের একপাশে সমাবেশের অনুমতি মিলেছে। দিনের আলোতে সমাবেশ শেষ করা এবং সমাবেশকে ঘিরে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য নিজস্ব নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ কয়েকটি শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে।