জনাসমাগম ঠেলে ঠিক ভরদুপুরে খালে ঝাঁপ দিলেন মধ্যবয়সী এক ব্যক্তি। পরে বুঝলেন তলিয়ে যাচ্ছেন ক্রমাগত। সাহায্যের জন্য যখন চিৎকার করতে শুরু করলেন, তখন ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সদস্য ফোন করেন ফায়ার সার্ভিসে। পরে উদ্ধারকর্মীদের সহায়তাংয় প্রাণে বেঁচে যান তিনি।

রোববার দুপুরের বন্দরনগরীর চান্দগাঁও থানার বহদ্দারহাট বাস টার্মিনালসংলগ্ন ডোমখাল এমন ঘটনা ঘটেছে।

ফায়ার সার্ভিস কালুরঘাট স্টেশনের সিনিয়র অফিসার বাহার উদ্দিন সমকালকে বলেন, পৌনে বারটার দিকে ওই ব্যক্তি নালায় ঝাঁপ দেন। নালা গভীর হওয়ায় তিনি উঠতে পারছিলেন না। ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সদস্যরা আমাদের খবর দেন। সাড়ে ১২টার দিকে তাকে উদ্ধার করেছি। শুস্ক মৌসুম হওয়ায় খালে স্রোত ছিল না। ফলে লোকটি বেঁচে যায়। 

তিনি বলেন, ‘মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ওই ব্যক্তি নিজেই খালে ঝাঁপ দিয়েছিলেন। খাল গভীর হওয়ায় তিনি উঠতে পারছিলেন না।’

গত শনিবার বিকালে ঘটনাস্থলের অদূরে পুরাতন চান্দগাঁও থানার হাজী নুরুল ইসলাম মঞ্জিলের সামনে ফুটপাতের খোলা নালায় পড়ে যায় এক শিশু। সঙ্গে থাকা অভিভাকরা তাকে তাৎক্ষণিক টেনে তুলেন।

প্রসঙ্গত, গত একবছরে চট্টগ্রাম নগরের খাল-নালায় পড়ে শিশুসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন এক ব্যক্তি। সাতমাসেও তার খোঁজ মেলেনি।