আঞ্চলিক সংঘাতে গড়াতে পারে ইরান-সৌদি বিরোধ

০৬ জানুয়ারি ২০১৬

সমকাল ডেস্ক

সৌদি আরব ও ইরানের বিরোধ আঞ্চলিক সংঘাতে রুপ নিতে পারে। এ বিরোধের কারণে সিরিয়া ও ইয়েমেনের শান্তি আলোচনা বাধাগ্রস্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। যুক্তরাষ্ট্রও একই আশঙ্কা প্রকাশ করেছে। তবে শান্তি আলোচনা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে এরই মধ্যে জোর তৎপরতা শুরু হয়েছে। এ লক্ষ্যে জাতিসংঘের প্রতিনিধি জরুরি ভিত্তিতে সৌদি আরব ও ইরান সফরে গেছেন। তবে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের ঘটনায় সিরিয়া ও ইয়েমেনের শান্তি আলোচনায় প্রভাব পড়বে না বলে আশ্বস্ত করেছে সৌদি আরব। অন্যদিকে ইরান সরকারের মুখপাত্র মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানান, সম্পর্ক ছিন্ন করায় ইরানের ক্ষতি হবে না। এদিকে সৌদি মিত্র কুয়েতও এবার ইরানে নিয়োজিত তাদের রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করেছে। ইরানের সঙ্গে বিমান উড্ডয়ন নিষিদ্ধ করেছে বাহরাইন। খবর :বিবিসি, এএফপি, আলজাজিরা, এনডিটিভি।
সিরিয়ার শান্তি আলোচনায় অর্জিত সাফল্য যেন ঝুঁকির মধ্যে না পড়ে তা নিশ্চিত করতেই জাতিসংঘ দূত স্টেফান ডি মিস্তুরা এ সফর করছেন। আগামী ২৫ জানুয়ারি প্রথমবারের মতো সিরিয়ার বাশার আল আসাদ ও তার বিরোধী দলগুলোর মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। তা যেন ভেস্তে না যায় তারই আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন জাতিসংঘ দূত।
শনিবার প্রভাবশালী শিয়া ধর্মীয় নেতা শেখ নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড রিয়াদ কার্যকর করার পর বিক্ষোভকারীরা ইরানে সৌদি দূতাবাসে হামলা চালায়। এর প্রতিক্রিয়ায় সৌদি আরব রোববার ইরানের সঙ্গে সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করে। উভয় দেশের কূটনৈতিক অচলাবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন টেলিফোনে সৌদি আরব ও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। তিনি পরিস্থিতি আরও নাজুক করার মতো যে কোনো পদক্ষেপ এড়িয়ে চলতে উভয় পক্ষের প্রতি জোর আহ্বান জানান। সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়েরের সঙ্গে আলাপকালে বান কি মুন শেখ নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। সৌদি দূতাবাসে হামলাকে দুঃখজনক এবং ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের সৌদি সিদ্ধান্ত গভীর উদ্বেগজনক বলে উল্লেখ করেন। এদিকে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের সঙ্গে আলাপকালে বান কি মুন কূটনৈতিক স্থাপনা রক্ষার জন্য তেহরানের প্রতি আহ্বান জানান।
যুক্তরাষ্ট্রের আশঙ্কা :এ ঘটনায় সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ অবসানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির এতদিনের চেষ্টার ফল বড় ধরনের ধাক্কা খাবে বলে মনে করছে দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তরের সাবেক ও বর্তমান দুই কর্মকর্তা। একজন কর্মকর্তা বলেন, এ ঘটনার পর শান্তি আলোচনা চালানো অনেক কঠিন হয়ে পড়বে। অন্যজন বলেন, এরই মধ্যে এই শান্তি প্রক্রিয়া মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে পড়ে গেছে।
সৌদি দূতাবাসে হামলার নিন্দা নিরাপত্তা পরিষদের :জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সোমবার ইরানে সৌদি দূতাবাসে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নিরাপত্তা পরিষদের এক বিবৃতিতে ইরানের প্রতি কূটনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও সম্পদ রক্ষার আহ্বান জানানো হয়েছে।
শান্তি আলোচনায় প্রভাব পড়বে না_ সৌদি আরব :
জাতিসংঘে নিয়োজিত সৌদি দূত আবদুল্লাহ আল মুয়ালিমি সোমবার জানান, ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে গেলেও সিরিয়া ও ইয়েমেনের শান্তি প্রক্রিয়ায় তা প্রভাব ফেলবে না। সৌদি আরব শান্তি আলোচনার প্রতি দৃঢ় সমর্থন বজায় রাখবে জানিয়ে তিনি বলেন, পরবর্তী দফার সিরিয়া ও ইয়েমেনের শান্তি আলোচনায় রিয়াদ অংশ নেবে। এদিকে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, সৌদি-ইরান দ্বন্দ্বে সিরিয়ার শান্তি প্রচেষ্টা ব্যাহত হবে। রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্ব শক্তিধর অন্যান্য দেশের সমন্বয়ে চলা শান্তি আলোচনায় আবার রিয়াদ ও তেহরানকে একই টেবিলে বসানো হবে কঠিন কাজ। উল্লেখ্য, সিরিয়ার প্রায় পাঁচ বছরের গৃহযুদ্ধ অবসান এবং ইয়েমেনের জন্য একটি রাজনৈতিক সমাধান আনতে ইরান ও সৌদি আরব উভয় দেশের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)