ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে পাঁচজনের মনোনয়ন বৈধ

শাফিনের প্রার্থিতা বাতিল

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলামসহ পাঁচজনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষিত হয়েছে। তবে জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত মেয়র প্রার্থী জনপ্রিয় ব্যান্ডশিল্পী শাফিন আহমদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে ঋণখেলাপের দায়ে। গতকাল শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনের প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ভবনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র বাছাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এ সময় ঋণখেলাপের দায়ে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদের ছয় প্রার্থীর মনোনয়নপত্রও বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

মেয়র পদের বৈধ প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) আনিসুর রহমান দেওয়ান, জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) ববি হাজ্জাজ, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) শাহীন খান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রহিম। বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এই নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। নির্বাচনে প্রার্থী দেয়নি বাম গণতান্ত্রিক  জোটও।

মনোনয়নপত্র বাতিল প্রসঙ্গে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় শাফিন দাবি করেন, তিনি ঋণখেলাপি নন। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাওয়া তার সিআইবি রিপোর্টও ক্লিয়ার। অযৌক্তিকভাবে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে শাফিন জানান, ইসির এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তিনি আপিল করবেন।

মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া কাউন্সিলর প্রার্থীরা হলেন- ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের তানজিনা হক, ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাইফুল্লাহ কাদির, ৫১ নম্বর ওয়ার্ডের শওকত চৌধুরী এবং ৫২ নম্বর ওয়ার্ডের রাইসুল ইসলাম, ফরিদ আহমেদ ও মির্জা মো. ইলিয়াস। নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তিন দিনের মধ্যে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপিলের সুযোগ পাবেন মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীরা।

২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর গত বছর উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞায় ওই নির্বাচন আটকে যায়। সম্প্রতি সেই জটিলতা শেষে পুনঃতফসিল হলে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন শাফিন। এই উপনির্বাচনে প্রার্থিতার জন্য মেয়র পদে ২৬ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও জমা দিয়েছেন ছয়জন। ৩০ তারিখ ছিল মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিন। ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে।

২৮ ফেব্রুয়ারি মেয়র পদে উপনির্বাচনের পাশাপাশি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণে সংযুক্ত ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রথমবার ভোট অনুষ্ঠিত হবে। একই দিনে ঢাকা উত্তরের ৯ ও ২১ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদেও উপনির্বাচন হবে। ঢাকা উত্তরে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৬৭ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৪৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। দক্ষিণে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৫৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ২৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন।

© সমকাল 2005 - 2019

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭ (প্রিন্ট পত্রিকা), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) । ইমেইল: [email protected]