নার্স তানিয়াকে ধর্ষণ ও হত্যার কথা স্বীকার হেলপারের

১৫ মে ২০১৯

কিশোরগঞ্জ অফিস

ফাইল ছবি

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে চলন্ত বাসে নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যার মামলায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বাসের হেলপার লালন মিয়া।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আল মামুনের আদালতে এ জবানবন্দি দেওয়ার পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে গণধর্ষণের পর তানিয়াকে হত্যা মামলায় চালক নুরুজ্জামান স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। এ ছাড়া এ ঘটনায় গ্রেফতার আারও তিন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শাহিনুর হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বাজিতপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সারোয়ার জাহান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, জবানবন্দিতে লালন বলেছে, সে, বাসের চালক ও আরেক ব্যক্তি মিলে ধর্ষণের পর শাহিনুরকে বাস থেকে ফেলে দেয়। রোববার চালক নুরুজ্জামানও একই জবানবন্দি দিয়েছিল। মামলার এজাহারভুক্ত চার আসামির মধ্যে দুজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বাকি দুজন এখনো পলাতক।

গত ৬ মে রাত সাড়ে ৮টার দিকে কটিয়াদীর বাহেরচরে যাওয়ার পথে বাজিতপুরের বিলপাড় গজারিয়া নামক স্থানে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের শিকার হন শাহিনুর।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)