পূজার ছুটে চলা

১৬ মে ২০১৯ | আপডেট: ১৬ মে ২০১৯

অনিন্দ্য মামুন

পূজা চেরি

সময় থমকে থাকে না। সে তার নিজের গতিতে চলে। সময়ের সঙ্গে বদলে যায় মানুষ। গতিশীল হয় জীবন। গতিশীল এই জীবনে মানুষ বহুমাত্রিক রূপে বিকশিত হয়। অভিনেত্রী পূজা চেরির কথাই ধরা যাক। শিশুশিল্পী থেকে আজ পুরোদস্তুর নায়িকা তিনি। যে নায়কদের ছোট বোনের চরিত্রে দেখা গেছে, একদিন সেই নায়কদেরই নায়িকা হয়ে উঠছেন আজকাল। সময় গড়ালে যা হয়। এই সময়কে নিজের করে নিয়েছেন পূজা চেরি।

নায়িকা হিসেবে অভিষেক হওয়ার পর থেকেই একের পর এক আলোচনায় তিনি। শিশু পূজার অভিনয়ের সঙ্গে যারা পরিচিত ছিলেন, নায়িকা পূজার অভিনয়ে তারা হচ্ছেন মুগ্ধ। তাই তো ২০১৮ সালের চলচ্চিত্রের অভিনেত্রীদের মধ্যে সর্বাধিক আলোচিত নায়িকা পূজা। উপহার দিয়েছেন দুটি ব্যবসাসফল ছবি। ফলে বলা যেতেই পারে, সে বছরটা পুরোটাই নিজের সাফল্যের মুঠোয় ভরেছেন তিনি।

পূজা চেরি

এই সাফল্য ধরা দিচ্ছে- পূজার কেমন লাগছে এতে? প্রশ্ন রাখা হয় তার কাছে। পূজার বড়দের মতো উত্তর। 'সাফল্য পেলাম কই! আমি তো আমার কাজটি করে যাচ্ছি। এখন সাফল্য আর ব্যর্থতার দিকে তাকাচ্ছি না। তাকাতে চাইও না। আমি কেবল অভিনয় করব। ভালো ভালো কাজ করব।' এই নায়িকা পূজার বয়স আর কত! ঢালিউডের সর্বকনিষ্ঠ নায়িকা তিনি।

অথচ কথায় পরিণত বেশ। পূজার সঙ্গে যখন কথা হচ্ছিল তখন বেশ উচ্ছ্বসিত দেখাল তাকে। উচ্ছ্বাসের কারণও ঘটেছে। নায়িকা পূজার এসএসসির রেজাল্ট হয়েছে। ভালো ফল নিয়েই উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি। তাই প্রশংসায় ভাসছেন। এই যে সিনেমার শুটিংয়ের ব্যস্ততা। ঠিকমতো পড়াশোনায় সময় না দেওয়াতেও মোটামুটি ভালো রেজাল্টই করেছেন তিনি। তবে পড়াশোনায় আরও একটু মনোযোগী হওয়ার দরকার ছিল বলেও পূজার গলায় আক্ষেপ ভেসে এলো। পূজা বললেন, এসএসসি পরীক্ষার আগে চলচ্চিত্রের কাজ নিয়ে আমাকে ব্যস্ত থাকতে হয়েছে। ছবির প্রচারণার ব্যস্ততাও ছিল। এর মাঝেও আমি পড়াশোনা করেছি। আমার মায়ের কাছে কৃতজ্ঞ। মায়ের তাগিদেই পাস আমি।'

রাজধানীর মগবাজার গার্লস হাই স্কুল থেকে ২০১৯ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় অংশ নেন পূজা। তিনি বাণিজ্য বিভাগের ছাত্রী। ভবিষ্যতেও বাণিজ্য বিভাগেই পড়তে চান তিনি। এবার পূজা স্বপ্ন দেখছেন কলেজে ভর্তি হওয়ার।

রেজাল্টের ওপরে নির্ভর করে কোথায় ভর্তি হবো, সেটা এখনই তো বলা যাচ্ছে না। নায়িকা হিসেবে পূজা চেরির তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে- 'নূরজাহান', 'পোড়ামন টু' ও 'দহন'। সম্প্রতি নতুন ছবিতেও তিনি 'শান' নামের ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এ ছবিতে তার নায়ক থাকছেন সিয়াম আহমেদ। যিনি আগের পোড়ামন টু ও দহন ছবিতে পূজার নায়ক ছিলেন। গিয়াস উদ্দিন সেলিমের আরও একটি প্রজেক্টে কাজ করতে যাচ্ছেন বলে জানা গেল তার কাছে। আরও কথা হচ্ছে নতুন ছবি নিয়ে। যেগুলো এখনও চূড়ান্ত নয়। কেবল চিত্রনাট্য নিয়েই কথা হচ্ছে। সব দেখার পর পছন্দ হলেই স্বাক্ষর। এরপর শুটিং শুরু। অনুমান করাই যাচ্ছে, ২০১৯ সালটিও নিজের মুঠোয় ভরতে যাচ্ছেন পূজা। তবে কেবল নায়িকা হয়ে বেঁচে থাকতে চান না তিনি। হতে চান অভিনেত্রী।

পূজার মুখে, 'আমি কখনোই নায়িকা হয়ে বেঁচে থাকতে চাই না। চাই একজন সত্যিকার অভিনেত্রী হয়ে দর্শকদের মাঝে  বেঁচে থাকতে। সেই ছোটবেলা থেকেই তো শিখছি। আরও শিখতে চাই। প্রতিনিয়ত শেখার মধ্য দিয়েই যাব। দর্শকদের ভালোবাসা আর সমর্থন পেলে আমিও একজন তাদের প্রিয় অভিনেত্রী হয়ে উঠতে পারব বলে আমার বিশ্বাস।' সাধারণত শিশুশিল্পী থেকে নায়িকা! অতীতে ঢাকাই ছবির নায়িকাদের বেলায় খুব একটা হয়নি। ব্যতিক্রম পূজা চেরি। তিনি তা হয়েছেন। এই তো ক'দিন আগেও দর্শকদের কাছে পূজা শিশুশিল্পী হিসেবেই আলোচিত ছিলেন।

সেই শিশুটিই এখন পুরোদস্তুর নায়িকা। বড় পর্দায় নায়কের সঙ্গে রোমান্স করছেন। একেবারে পরিণত এখন। একজন নায়িকা হওয়ার সব গুণই পাওয়া যাবে তার মধ্যে। দোহারা গড়ন, ডাগর ডাগর চোখ, লম্বা হাত-পা; সবই যেন বলে দেয়, ঢাকাই চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে দীর্ঘদিন পর পারফেক্ট নায়িকাই পেয়েছে। সেই ছোট পূজা থেকে আজকের নায়িকা পূজা। কার গাইডলাইনে এ পর্যন্ত আসা? জানতে চাইলে মুচকি হেসে জানান, 'মায়ের পরামর্শেই চলি আমি। গাইডলাইনে বাবাও সব সময় থেকেছেন পাশে।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)