নানা বিতর্কের মধ্যেই ট্রাম্পের ব্রিটেন সফর

০৪ জুন ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে যুক্তরাজ্যে পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সঙ্গে রয়েছেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পও। তাদের বহনকারী এয়ারফোর্স ওয়ান বিমানটি গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় যুক্তরাজ্যের স্টানটেড বিমানবন্দরে পৌঁছায়। বিভিন্ন ইস্যুতে বিতর্কের মধ্যেই লন্ডন সফর শুরু করলেন ট্রাম্প। তার এই সফরকে কেন্দ্র করে সেখানে ব্যাপক বিক্ষোভের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়। খবর বিবিসি ও এএফপির।

ব্রিটিশ রাজপরিবারের অতিথি হিসেবে এবার যুক্তরাজ্য সফর করছেন ট্রাম্প। এরই অংশ হিসেবে গতকাল বাকিংহাম রাজপ্রাসাদে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিনন্দন জানান রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া গ্রিন পার্কে এবং টাওয়ার অব লন্ডন থেকে তাকে রাজকীয় গান-স্যালুট জানানো হয়েছে। রাতে বাকিংহাম রাজপ্রাসাদে রাষ্ট্রীয় ভোজের আয়োজন করছেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। রাষ্ট্রীয় ভোজের শুরুতেই ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠকের কথা রয়েছে। বৈঠকে জলবায়ু পরিবর্তন ও চীনা প্রযুক্তি সংস্থা হুয়াওয়ে নিয়ে আলোচনা হবে। এ ছাড়া বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন ট্রাম্প।

আজ সকালে ট্রাম্প দম্পতির জন্য নাশতার আয়োজন করেছেন তেরেসা মে। এর আয়োজন হবে সেইন্ট জেমস রাজপ্রাসাদে। সেখানে ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ী নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। এরপর ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়াকে নিয়ে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে আলোচনায় বসবেন মে। তারা একসঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ গ্রহণ করবেন। ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি ১০ ডাউনিং স্ট্রিটে সংবাদ সম্মেলন করবেন। ব্রিটেনে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের বাসভবন উইনফিল্ড হাউসে নৈশভোজের আয়োজন করছেন ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি। রানীর পক্ষে এতে যোগ দেবেন প্রিন্স অব ওয়েলস এবং ডাচেস অব কর্নওয়াল। রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও প্রিন্স অব ওয়েলসের সঙ্গে বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বুধবার অতিবাহিত করবেন ট্রাম্প দম্পতি। এদিকে ট্রাম্পের এ সফরকে ঘিরে ব্যাপক বিক্ষোভের প্রস্তুতি নিয়েছে যুক্তরাজ্যজুড়ে হাজার হাজার মানুষ। লন্ডন, ম্যানচেস্টার, বেলফাস্ট, বার্মিংহাম ও নটিংহামে সমাবেশের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এসব বিক্ষোভে বিখ্যাত 'ট্রাম্প বেবি' নামের বেলুন দৃশ্যমান হবে। পাশাপশি থাকবে রোবট ট্রাম্প, যাকে দেখানো হয়েছে একটি স্বর্ণের টয়লেটের কমোডের ওপর বসে আছেন। এই রোবটের উচ্চতা ১৬ ফুট।

এদিকে যুক্তরাজ্যে অবতরণের ঠিক আগ মুহূর্তে লন্ডনের মেয়র সাদিক খানের কড়া সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প। সাদিক খানকে 'অসার' বলে অভিহিত করেছেন ট্রাম্প। এর কয়েকদিন আগে ট্রাম্প সম্পর্কে সাদিক খান লিখেছেন, বিশ্বজুড়ে ক্রমাগত হুমকির সবচেয়ে ভয়াবহ উদাহরণগুলোর মধ্যে অন্যতম হলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। নিউইয়র্কের বামপন্থী মেয়র বিল ডি ব্লাসিওর সঙ্গে সাদিক খানকে তুলনা করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্প বলেন, তিনি যেন ডি ব্লাসিওর যমজ, পার্থক্য শুধু তার থেকে খাটো বা বেঁটে। এ নিয়ে ব্রিটিশ মিডিয়ায় তোলপাড় চলছে।

এ ছাড়া যুক্তরাজ্য সফরের আগে 'দ্য সান' পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ব্রিটিশ রাজবধূ 'ডাচেস অব সাসেক্স' মেগান মার্কলকে নোংরা বলে মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প। তবে পরে এ কথা অস্বীকার করেছেন তিনি। ওই সাক্ষাৎকারের অডিও রেকর্ড প্রকাশের পরও তিনি তা অস্বীকার করে বরাবরের মতোই সব দায় চাপিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমের ঘাড়ে।

রোববার এক টুইটে ট্রাম্প বলেছেন, আমি কখনোই মার্কলকে নোংরা বলিনি। এটি ভুয়া সংবাদমাধ্যমেরই বানোয়াট কথা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া নিয়ে এরই মধ্যে কথা বলেছেন ট্রাম্প। তিনি কোনো চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট সম্পাদন করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে আসা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন। এ প্রক্রিয়ায় যুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন নাইজেল ফারাজেকে। ট্রাম্পের এমন আহ্বানকে ব্রিটেনের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ হিসেবে দেখছেন সাদিক খান।

© সমকাল 2005 - 2019

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭ (প্রিন্ট পত্রিকা), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) । ইমেইল: [email protected]