গানে গানে স্মরণ

সুবীর নন্দী ছিলেন বাংলা গানের কিংবদন্তী পুরুষ

১৪ জুলাই ২০১৯

লন্ডন

অনুষ্ঠানে অতিথিরা- সমকাল

সদ্য প্রয়াত সঙ্গীত শিল্পী সুবীর নন্দী ছিলেন বাংলা গানের জগতের কিংবদন্তী পুরুষ। বাংলা সংস্কৃতি অঙ্গনের সমৃদ্ধায়নে তার কন্ঠের অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্ম।

শুক্রবার বিকেলে পূর্ব লন্ডনের ব্রাডি আর্টস সেন্টারে সদ্য প্রয়াত এই খ্যাতিমান শিল্পীর স্মরণে তার জীবন ও কর্ম নিয়ে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত সঙ্গীত ও যন্ত্র শিল্পীদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এক স্মরণ অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন তার সতীর্থরা।

বিলেতের খ্যাতিমান দুই সঙ্গীত শিল্পী হিমাংশু গোস্বামী ও গৌরি চৌধুরীর সার্বিক তত্বাবধানে ও টেলিভিশন উপস্থাপিকা উর্মি মাজহারের পরিচালনায় আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রয়াত শিল্পীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শিল্পী হিমাংশু গোস্বামী।

বাংলাদেশের আরেক খ্যাতিমান শিল্পী তপন চৌধুরীসহ বিলেতের শিল্পীরা প্রয়াত শিল্পীর জনপ্রিয় গান গুলো গেয়ে গেয়ে শ্রদ্ধা জানান বাংলা গানের অহঙ্কার প্রয়াত সুবির নন্দীর প্রতি।

শিল্পীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এসময় বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সুবির নন্দীর মামাতো ভাই শুভাগত দে, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব গোলাম মোস্তফা ও রন্জিতা সেন।

প্রয়াত প্রিয় এই শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন বিলেতের শীর্ষ কমিউনিটি ব্যক্তিত্বরাসহ বিপুল সংখ্যক মানুষ। এক পর্যায়ে হলের আসন সংখ্যা পূর্ণ হয়ে গেলে দর্শক স্রুোতাদের অনুষ্ঠানস্থলে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।

সতীর্থ শিল্পীর এই স্মরণ অনুষ্ঠান পরিনত হয়েছিলো বিলেতের শোকাহত সঙ্গীত ও যন্ত্র শিল্পীদের মিলন মেলায়। এই শিল্পীদের অনেকেই সুবীর নন্দী স্মরণে গান গেয়েছেন, সময়ের স্বল্পতায় অনেকেই পারেননি।

প্রয়াত সুবির নন্দীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অনুষ্ঠানে একে একে তার জনপ্রিয় গানগুলো পরিবেশন করেন বাংলাদেশ থেকে আগত শিল্পী তপন চৌধুরী, বিলেতের সর্বজন শ্রদ্ধেয় জনপ্রিয় শিল্পী হিমাংশ গোস্বামী, শিল্পী সয়ফুল উদ্দিন, আলাউর রহমান, সুনয়ন চৌধুরী, শরীফ আহমেদ, আমিন রাজা, তপু, তন্নি ও ফারজানা সুপা স্বপ্না প্রমূখ।

গানের শুরুতে সব শিল্পীই শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন মাটি ও মানুষের শিল্পী প্রয়াত সুবির নন্দীকে। বলেন, তার কন্ঠ বাংলা সঙ্গীতাঙ্গনকে সমৃদ্ধ করেছে। শিল্পীদের কেউ কেউ এসময় সুবির নন্দীকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে কিছুটা আবেগ প্রবণও হয়ে ওঠেন।

স্মরণ অনুষ্ঠানের অন্যতম উদ্যোক্তা হিমাংশু গোস্বামী সুবীর নন্দীর স্মৃতিচারণ করে সত্যবাণীকে বলেন, ‘বাংলা গানের জগতে তিনি ছিলেন অন্যতম অলঙ্কার। এই গুনি শিল্পী নিজের সুর, কন্ঠ ও মেধা দিয়ে সংগীত জগতকে যেভাবে সমৃদ্ধ করেছেন, বিনিময়ে আমরা তাকে কিছুই দিতে পারিনি। ভবিষ্যতে বাংলা সংগীতাঙ্গন নিয়ে কোন পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস রচিত হলে, আমি নিশ্চিত সুবির নন্দী তার আপন স্বত্ত্বা নিয়ে সেই ইতিহাসের অংশ হবেন’।

আরেক উদ্যোক্তা গৌরি চৌধুরী বলেন, ‘সুবীর দা ছিলেন আমার মতো অনেক শিল্পীর অনুপ্রেরণা। তার সাথে সখ্যতা আমার জীবনের অন্যতম বড় একটি পাওয়া। আসলে আমাদের নিজেদের প্রয়োজনেই সুবির নন্দীর মতো শিল্পীদের স্মরণে রাখা উচিত। বাংলা গানের অন্যতম অহঙ্কার এই শিল্পী হয়তো দেহান্তরিত হয়েছেন, কিন্তু তাঁর সুর ও কন্ঠ তো কখনও হারিয়ে যাবার নয়। আমরা তার এই কালজয়ী সুর ও কন্ঠ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে পৌছে দিতে চাই।’

সুবীর নন্দীর স্মরণ অনুষ্ঠানে যারা সহযোগিতা করেছেন, যারা উপস্থিত হয়েছেন এবং যারা এই শিল্পীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে গৌরি চৌধুরী বলেন, ‘সুবীর নন্দীর মতো গুনী শিল্পীদের স্মরণ করে আমরা নিজেরাই সম্মানিত হচ্ছি।’


© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)