রিফাত হত্যায় আরও দুইজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

১৪ জুলাই ২০১৯

বরগুনা প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার আরও দুই আসামি আদালতে
স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যার পরে মামলার
এজাহারভুক্ত আসামি টিকটক হৃদয় ও সিসি টিভির ফুটেজ দেখে জড়িত সন্দেহে
গ্রেফতার রাতুল শিকদার বরগুনার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের
বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে এ জবানবন্দি দেন।

এর আগে এ
মামলায় আরও ৭ আসামি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এ নিয়ে এজাহারভুক্ত
৪ জনসহ মোট ৯ জন আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিলেন।

আদালত টিকটক হৃদয়কে কারাগারে এবং রাতুল শিকদারের বয়স কম হওয়ায় সেইফহোমে পাঠানোর নির্দেশ
দিয়েছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির বলেন, রিফাত হত্যা মামলার ১২
নম্বর আসামি টিকটক হৃয়কে দু'দফায় ৫দিন করে ১০দিন এবং রাতুল শিকদারকে ৩দিনের
রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রোববার বিকেলে আদালতে হাজির করা হলে তারা
দু'জনই ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

রিফাত হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত ২ জুলাই
ভোররাতে মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়।
এ ঘটনায় বর্তমানে ৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা
প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী
আয়েশা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের সঙ্গে লড়াই করেও তাদের দমাতে পারেননি।

গুরুতর আহত রিফাতকে ওইদিন বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে
ভর্তি করা হলে বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় রিফাতের
বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে ৫ থেকে ৬ জনকে অজ্ঞাত
আসামি করে বরগুনা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।


© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)