হোসে কোজেরের কবিতা

অনুবাদ

১২ জুলাই ২০১৯

ভূমিকা ও ভাষান্তর :সাখাওয়াত টিপু

কবি হোসে কোজেরের জন্ম ১৯৪০ সালে, কিউবার রাজধানী হাভানায়। বাবা পোলিশ আর মা চেকোস্লোভাকিয়ান। ১৯২০ সালে তাঁর পরিবার চেকোস্লোভাকিয়া থেকে কিউবায় পাড়ি জমায়। আইন বিষয়ে তিনি পড়াশোনা করেছেন হাভানা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ১৯৬০ সালে সাহিত্য বিষয়ে পড়তে যান মার্কিন দেশে। দীর্ঘদিন সাহিত্যের অধ্যাপনা করেছেন। অবসর নেন ১৯৯৭ সালে। বস্তুত তাঁকে লাতিন কবিতার নিউবারোকো মুভমেন্ট বা বিকল্প আধুনিক কবিতার প্রধান হিসেবে ধরা হয়। তাঁর গ্রন্থসংখ্যা অর্ধ-শতাধিক। পাবলো নেরুদা পুরস্কারসহ অসংখ্য আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি। বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত হয়েছে তাঁর কবিতা। সম্প্রতি অনুবাদকের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ হয়। তাঁর অনুমতিক্রমে ইংরেজি থেকে অনুবাদকৃত দুটি কবিতা পত্রস্থ করা হলো। বিকল্প আধুনিক কবিতার প্রবক্তা হোসে কোজের বর্তমানে স্পেনে বসবাস করছেন।

দেশান্তরী

হাভানার দোকানে ধূলি
আর আইরিশ তুলোদণ্ডে ধূলি
আর আমার বাবা, ধুলোমলিন একজন ইহুদি,
দিনের পর দিন মুঠোবন্দি হাতে তিনি এক টুকরো রুটি নিয়ে ফেরেন।
দিনের পর দিন, একই রকম প্রতিদিন,
তার বাঁকা চোখে যেন কাশ্মিরি ডোরাকাটা
এমন না যে অস্থির চোখে অগভীর খোঁজা এক অধিনায়ক
বাড়ি ফিরলেন তিনি, এক রুক্ষ আর বুদবুদ ভরা গর্তে।
বাবা আসলেন :আমরা দুপুরে খেলাম, আমাদের চোখ স্থির হয়ে আছে
অলংকার শোভিত কার্নিশে।
আমি কখনো জল পরতে দেখিনি, না দেখেছি কখনো
মাছ আর ফুলকপি।
আম্মা আসেন, মোছেন আসবাব
ভারী খোদাইয়ের, বিষুদবারের কুশন বদলান,
কখনো কোনো ফুল কোনো শোবার ঘরে ছিল না।
হাভানার সব দোকান বন্ধ ছিল,
শ্রমিকেরা, চেঁচাচ্ছিল জোরে, শুয়ে পড়ছিল রাস্তায়,
আর আমার বাবা, ধুলোমলিন ইহুদি,
ফের আরো একবার আইনের সিন্দুক বইলেন
যখন তিনি কিউবা ছাড়লেন।


অনুমানবাদ

এই
গাঁয়ের
মধ্যে
জ্ঞানীরা
কথা
বলে,
অজ্ঞরা
চুপচাপ।

এই সেই গাঁ যেখানে আমি আমার জীবনের শেষদিন কাটাতে চাই।

এই
গাঁয়ের
মধ্যে
তুমি
কখনো
শোনোনি
এক
শব্দে
কথা বলে।

© সমকাল 2005 - 2019

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭ (প্রিন্ট পত্রিকা), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) । ইমেইল: [email protected]