টাকা আত্মসাতের অভিযোগ বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ২৮ আগস্ট

১২ জুলাই ২০১৯

আদালত প্রতিবেদক

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে দুদকের করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৮ আগস্ট দিন ধার্য করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েস গতকাল বৃহস্পতিবার মামলাটির এজাহার গ্রহণ করেন। পরে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য এ দিন ধার্য করেন আদালত।

ক্ষমতার অপব্যবহার করে ফারমার্স ব্যাংকের ৪ কোটি টাকা আত্মাসাতের অভিযোগে বুধবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে কমিশনের জেলা সমন্বিত কার্যালয় ঢাকা-১ এ অর্থ পাচার ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে

মামলাটি করেন।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- ফারমার্স ব্যাংকের (বর্তমান পদ্মা ব্যাংক) সাবেক এমডি একেএম শামীম, সাবেক এসইভিপি গাজী সালাহউদ্দিন, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায় ও সাফিউদ্দিন আসকারী, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জিয়াউদ্দিন আহমেদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট লুতফুল হক, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান ও নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা, এস কে সিনহার কথিত একান্ত

সচিব (পিএস) রঞ্জিত চন্দ্র সাহা ও রঞ্জিতের স্ত্রী সান্তী রায় সিমি। প্রতারণা করে ফারমার্স ব্যাংকের গুলশান শাখা থেকে দ্রুত চার কোটি টাকা উত্তোলন করা হয়েছে বলে এজাহারে উলেল্গখ করা হয়।

এর আগে গত বছর ৪ অক্টোবর বিচারপতি এস কে সিনহার ব্যাংক হিসাবে চার কোটি টাকা লেনদেনের ঘটনায় জালিয়াতির প্রমাণের কথা জানিয়েছিলেন দুদকের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। অভিযোগ অনুসন্ধানে ওই বছর দুই দফায় আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০১৬ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা ক্ষমতার অপব্যবহার করে ফারমার্স ব্যাংকের চার কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন। ব্যাংকের কয়েকজন কর্মকর্তার যোগসাজসে প্রতারণা ও জালিয়াতির মাধ্যমে ঋণ অনুমোদন করে এ টাকা রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ এক ব্যক্তির নামে হস্তান্তর দেখানো হয়।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)