ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল সড়কে জলাবদ্ধতা

দুই সংস্থার রেষারেষির খেসারত দিচ্ছে জনগণ

১৬ জুলাই ১৯ । ০০:০০

শফিক সরকার, মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ)

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা শহরের প্রাণকেন্দ্র থানা ও জেলা পরিষদের ডাকবাংলো এলাকা। কিন্তু এ এলাকা নিয়ে সড়ক বিভাগের সঙ্গে পৌরসভার রেষারেষি দীর্ঘদিনের। যে কারণে এ এলাকার সড়কের পাশে ডাকবাংলোর অংশে ড্রেন করেনি পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। কাঁচা একটি ড্রেন রয়েছে শুধু। আর থানার সামনে ড্রেন থাকলেও নিয়মিত ড্রেনটি পরিস্কার না করায় সামান্য বৃষ্টি হলেই উপচে পড়ে পানি। এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। এর জেরে নাপিতখোলা মোড়ে পানিতে ডুবে থাকা ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল সড়কের মাঝখানে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এর খেসারত দিচ্ছে জনগণ।

এদিকে ভয়াবহ দুর্ঘটনা এড়াতে ওই গর্তের সামনে লাল কাপড় বেঁধে সতর্ক করছে এলাকাবাসী। তবে দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েই গেছে। এ রকম পরিস্থিতি কয়েক দিন ধরে চললেও কারও যেন দায়িত্ব নেই। পৌরসভা ও সড়ক বিভাগ শুধুই নীরব ভূমিকা পালন করছে। এদিকে কয়েক দিনের ভারি বৃষ্টিতে পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। মুক্তাগাছা থানায় প্রবেশের গেটেও থৈথৈ পানি। বালুর বস্তা ফেলে থানায় ঢোকার পথ করা হয়েছে। এ ছাড়া মহারাজা রোডের ড্রেনগুলো নিয়মিত পরিস্কার না করায় সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কে উপচে পড়ছে পানি, যা ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আর ডাকবাংলোর সামনে পাকা ড্রেন না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই কাদায় সয়লাব থাকে ওই এলাকা। এ ছাড়া পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় স্থায়ীভাবে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছে পৌরবাসী। এ সব সমস্যা কবে নাগাদ শেষ হবে তা কেউ জানে না।

থানার সামনে নেট ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ পরিস্থিতির জন্য পৌর কর্তৃপক্ষ দায়ী। ট্রাফিকের সহকারী উপপরির্দশক নজরুল ইসলাম বলেন, সড়কের ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হওয়ায় এর মাঝখানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে গর্তে আটকে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। পানির ওপর দাঁড়িয়েই যানজট নিরসনে কাজ করছে ট্রাফিক পুলিশ। মুক্তাগাছা পৌরসভার সচিব ইউনুছ আলী বলেন, মহাসড়কের ওপর ও পাশের জলাবদ্ধতা দূর করার কাজ পৌর কর্তৃপক্ষের নয়। এর দায়িত্ব সড়ক ও জনপথ বিভাগের। এ ছাড়া মাঝেমধ্যে ওই এলাকার ড্রেন পরিস্কার করা হয়।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ খান বলেন, শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনের দায়িত্ব পৌর কর্তৃপক্ষের।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com