শরীরে সূর্যের তাপ না লাগালে যেসব সমস্যা হয়

১১ জুলাই ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক

এটা সবারই জানা,সূর্যের অতিরিক্ত তাপের কারণে ত্বকের ক্যান্সার হতে পারে। আবার সূর্যের প্রখর তাপে অনেকের ত্বক বুড়িয়ে যায়, দাগ দেখা দেয়।

অন্যদিকে সূর্যের আলোতে থাকা ভিটামিন ডি শরীরের নানা গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিভিন্ন খাবার থেকে যদিও ভিটামিন ডি পাওয়া যায় তবে সূর্যের আলোই ভিটামিন ডি’য়ের সবচেয়ে ভাল উৎস। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বকের সুস্থতার জন্য অতিরিক্ত সূর্যের আলো থেকে দূরে যেমন জরুরি তেমনি শরীরের গঠনের জন্য সূর্যের আলো গায়ে লাগানোরও প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।শরীরে সূর্যের তাপ না লাগালে বা ঘটাতি হলে যেসব সমস্যা তৈরি হয়-

১. অতিরিক্ত সূর্যের আলো গায়ে লাগালে যেমন ত্বকের ক্যান্সার হয়  আবার এতে থাকা ভিটামিন ডি অনেক ধরণের কান্সার থেকেও শরীর বাঁচায়। এ কারণে সূর্যের আলো পুরোপুরি এড়িয়ে যাওয়া ঠিক নয়।

২. প্রাকৃতিকভাবে শরীর নাইট্রিক অক্সাইড নামে এক ধরনের গ্যাস তৈরি করে যা উচ্চ রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।সূর্যের আলোও মানবদেহে নাইট্রিক অক্সাইড সরবরাহ করতে সাহায্য করে। এ কারণে এটি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও হৃদরোগ প্রতিরোধের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

৩. শরীরে সূর্যের আলোর ঘাটতি হলে ওজন বাড়তে পারে।

৪. শীতকালে সবাই কমবেশি বিষন্নতার শিকার হন। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, পর্যাপ্ত সূর্যরশ্মির অভাবই মানুষের মনে বিষন্নতার তৈরি করে। সুর্যের আলোতে থাকা ভিটামিন ডি মস্তিষ্কের সুখী হরমোন সরবরাহ করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

৫. ভিটামিন সি শরীরের রোগ প্রতিরোধ বাড়ানোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেরই জানা নেই, ভিটামিন ডি-ও রোগ প্রতিরোধ বাড়াতে ভূমিকা রাখে। শরীরে ভিটামিন ডি’য়ের ঘাটতি হলে নানা ধরনের সংক্রমন দেখা দেয়।    

৬. শরীরে ভিটামিন ডি’য়ের ঘাটতি হলে হাড়ের সমস্যাও দেখা দেয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দিনে কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫ মিনিট সূর্যের আলো গায়ে লাগানো উচিত। তবে সেটা দুপুরের তপ্ত রোদ নয়। ভোরের মিষ্টি রোদ কিংবা বিকাল ৪ টার পর যখন সূর্যের তেজ কমতে থাকে তখন গায়ে লাগাতে পারেন। সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)