ডেঙ্গুতে চব্বিশ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১৭০৬

১৮ আগস্ট ২০১৯ | আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে আবার। আক্রান্ত হয়ে গত চব্বিশ ঘণ্টায় নতুন
করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এক হাজার ৭০৬ জন।

এর আগের দিন শনিবার কিছুটা
কমে এসেছিল রোগীর সংখ্যা। সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে সাত হাজারের বেশি
রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। রোববার পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৩৮ জনের। তবে
সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত ৪০ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের
তথ্য অনুযায়ী, রোববার সারাদেশে ডেঙ্গুতে নতুন করে এক হাজার ৭০৬ জন
আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে। তাদের মধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন
হাসপাতালে ৭৩৪ এবং বিভিন্ন বিভাগ, জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে ৯৭২ জন ভর্তি
হন।

এ নিয়ে চলতি বছর আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ হাজার ১৮২ জন। তাদের মধ্যে ৪৫
হাজার ৯৭৪ জন চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন। এখনও সাত হাজার ১৬৮ জন
হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে তিন
হাজার ৬৬৮ এবং অন্যান্য বিভাগের হাসপাতালে তিন হাজার ৫০০ জন।

ঢাকা বিভাগ: ঢাকা বিভাগের ঢাকা জেলায় ৬৫, গাজীপুরে ৩২, মুন্সীগঞ্জে ৩১,
কিশোরগঞ্জে ১৩২, নারায়ণগঞ্জে ৩৯, গোপালগঞ্জে ৩১, মাদারীপুরে ৫৭, মানিকগঞ্জে
১২৮, নরসিংদীতে ৪৭, রাজবাড়ীতে ৩৪, শরীয়তপুরে ৫১, টাঙ্গাইলে ৭৪, ফরিদপুরে
৪১ জনসহ মোট ৭৬২ জন ভর্তি আছেন। এ বিভাগে পাঁচ হাজার ১৮১ জন আক্রান্ত হয়ে
হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে চার হাজার ৪১৯ জন হাসপাতাল থেকে
ছাড়পত্র পেয়েছেন।

চট্টগ্রাম বিভাগ: চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলায় ১৮৩, ফেনীতে ৯৫,
কুমিল্লায় ১৩০ জন, চাঁদপুরে ৮৪, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫২, নোয়াখালীতে ৬৫,
কপবাজারে ৩১, লক্ষ্মীপুরে ৫৯, খাগড়াছড়িতে ২৫, রাঙামাটিতে ৭, বান্দরবানে ৭
জনসহ মোট ৭৩৮ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। মোট তিন হাজার ৯৮১ জন আক্রান্ত
হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এ বিভাগে। তাদের মধ্যে তিন হাজার ২৪৩ জন
ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

খুলনা বিভাগ: খুলনা জেলায় ১৬৫, কুষ্টিয়ায় ৬৫, মাগুরায় ২৫, নড়াইলে ২৮, যশোরে
১৯৭, ঝিনাইদহে ৩১, বাগেরহাটে ১৪, সাতক্ষীরায় ৪৬, চুয়াডাঙ্গায় ৯, মেহেরপুরে
১৩ জনসহ মোট ৫৮৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এ বিভাগে হাসপাতালে ভর্তি
ছিলেন দুই হাজার ৯৫১ জন। তাদের মধ্যে দুই হাজার ৩৬৭ জন ছাড়পত্র নিয়ে বাসায়
ফিরেছেন।

রাজশাহী বিভাগ: রাজশাহী জেলায় ৫৩, বগুড়ায় ১৩৩, পাবনায় ৬২, সিরাজগঞ্জে ৬৮,
নওগাঁয় ১৯, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩৫, নাটোরে ১৪, জয়পুরহাটে ৪ জনসহ মোট ৩৮৮ জন
হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ বিভাগে দুই হাজার ৩২১ জন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।
তাদের মধ্যে এক হাজার ৯৩৩ জন ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

রংপুর বিভাগ: রংপুর জেলায় ৯০, লালমনিরহাটে ১১, কুড়িগ্রামে ১৪, গাইবান্ধায়
১৬, নীলফামারীতে ১২, দিনাজপুরে ৫৯, পঞ্চগড়ে ৫, ঠাকুরগাঁওয়ে ২৩ জনসহ মোট ২৩০
জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ বিভাগে এক হাজার ৩৫৭ জন হাসপাতালে ভর্তি
ছিলেন। তাদের মধ্যে এক হাজার ১২৭ জন ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

বরিশাল বিভাগ: বরিশাল জেলায় ৩১৬, পটুয়াখালীতে ৪৫, ভোলায় ৩৪, পিরোজপুরে ৬৬,
ঝালকাঠিতে ১১, বরগুনায় ২৬ জনসহ মোট ৪৯৮ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ বিভাগে
দুই হাজার ৫৬৭ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে দুই হাজার ৬৯ জন
ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

সিলেট বিভাগ: সিলেট জেলায় ৪৫, সুনামগঞ্জ ২, হবিগঞ্জে ৫, মৌলভীবাজারে ১০
জনসহ মোট ৬২ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ বিভাগে ৬০৪ জন আক্রান্ত হয়ে
হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে ৫৩৬ জন ছাড়পত্র নিয়ে হাসপাতাল
ছেড়েছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগ: ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে ১৯০, জামালপুরে ৪০, শেরপুরে ২১,
নেত্রকোনায় ৯ জনসহ মোট ২৬০ জন ভর্তি আছেন। এ বিভাগে এক হাজার ৪৫৩ জন
আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে এক হাজার ১৯৩ জন
ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।


© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)