মোটরসাইকেল বহরে হামলা গলাচিপায় ডাকসু ভিপি নুরসহ আহত ১৫

১৫ আগস্ট ২০১৯

পটুয়াখালী, গলাচিপা ও দশমিনা প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর গলাচিপায় ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের মোটরসাইকেল বহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। ১৫ আগস্ট গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার রতনদী তালতলী ইউনিয়নের উলানিয়া বাজার এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ভিপি নুরুল হক নুরসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। তার অন্য সফরসঙ্গীরা দিজ্ঞ্বিদিক দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। আহত ভিপি নুরুল হক নুর গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে সেখান থেকে দ্রুত চলে যান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর তার নিজ বাড়ি চর বিশ্বাস থেকে বুধবার সকালে একটি নৌযানে নদী পার হয়ে গলাচিপার বদনাতলী আসেন এবং সেখান থেকে ৩০-৩৫টি মোটরসাইকেল বহর নিয়ে পার্শ্ববর্তী দশমিনা উপজেলায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে রতনদী তালতলী ইউনিয়নের কাটাখালী বাজারে পৌঁছে সেখানে অনির্ধারিত এক পথসভায় বক্তব্য দেন। অভিযোগে জানা যায়, নুর তার বক্তৃতায় জাতীয় শোকদিবস সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করেন। এ

সময় স্থানীয় জনতা তাকে ধাওয়া করলে তারা বহর নিয়ে দ্রুত ওই এলাকা থেকে সটকে পড়েন। কিন্তু এ খবর উপজেলার সর্বত্র ছড়িয়ে পড়লে ভিপি নুরের মোটরসাইকেলবহরটি উলানিয়া বাজারে পৌঁছলে জনতার হামলার কবলে পড়ে।

অভিযোগ রয়েছে, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের মোটরসাইকেল বহরে ঢাকার কবি নজরুল ইসলাম কলেজের ছাত্রদল নেতা সাইদুর মাতব্বর, সোহরাওয়ার্দী কলেজের ছাত্রদল নেতা শুভ, গলাচিপা উপজেলা ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি তালহাদিল আমীন ও জেলা ছাত্রশিবির নেতা মিলন আহমেদসহ ছাত্রদল ও ছাত্রশিবিরের বেশ কিছু নেতাকর্মী ছিলেন।

এদিকে ভিপি নুরুল হক নুরের বড় ভাই মো. নুরুজ্জামাল অভিযোগ করে বলেন, 'ভিপি নুরসহ আমরা একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দশমিনায় যাচ্ছিলাম। কিন্তু পথিমধ্যে পূর্ব উলানিয়া বাজারে পরিকল্পিতভাবে আমাদের ওপর হামলা হয়।' তবে ভিপি নূরের সফর সঙ্গী হিসেবে ছাত্রদল-ছাত্রশিবিরের নেতাকর্মীরা থাকার বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি।

এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ আকতার মোর্শেদ জানান, ভিপি নুর মোটরসাইকেল বহর নিয়ে দশমিনায় তার বোনের বাড়ি যাচ্ছিলেন। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও স্থানীয় এমপির বাড়িতে দাওয়াত খেতে যাচ্ছিলেন। পথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্যের বিষয়টি সম্পর্কে ভিপি নুরকে জিজ্ঞাসা করেন। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে ভিপি নুরসহ অন্যরা পার্শ্ববর্তী একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।



© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)