পিছিয়ে গেল জাতীয় পার্টির কাউন্সিল

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সমকাল প্রতিবেদক

ভেন্যু না পাওয়ায় পিছিয়ে গেছে জাতীয় পার্টির কাউন্সিল। আগামী ২১ ডিসেম্বর
কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন দলের চেয়ারম্যান জিএম কাদের। এর আগে
কাউন্সিলের জন্য ৩০ নভেম্বর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিল।

বুধবার রাজধানীর কাকরাইলে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ (আইবি)
মিলনায়তনে জাতীয় ছাত্র সমাজের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভায় বক্তব্য দিতে
গিয়ে কাউন্সিলের নতুন তারিখ ঘোষণা করেন জিএম কাদের। তিনি বলেন, ৩০ নভেম্বর
আইবির অনুষ্ঠানস্থল ফাঁকা নেই। এ জন্য কাউন্সিলের তারিখ পেছাতে হয়েছে।

ছাত্র রাজনীতির প্রসঙ্গ তুলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, 'এরশাদ সাহেব
যখন জেলে ছিলেন, তখনকার পরিস্থিতিতে জাতীয় পার্টি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেবে
কি-না দ্বিধায় ছিল। তখন জাতীয় ছাত্র সমাজ বলেছিল, পরিস্থিতি যাই হোক না
কেন নির্বাচনে অংশ নিতে হবে।'

অক্টোবরে জাতীয় ছাত্র সমাজের বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হবে। তার আগেই আটটি
বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কমিটিগুলো পুনর্গঠনের নির্দেশ দেন কাদের।
তিনি বলেন, অক্টোবরের মধ্যে ছাত্র সমাজের কাউন্সিল করতে হবে। নির্বাচনের
মাধ্যমে সংগঠনটির কমিটি গঠন করা হবে। এতে শুধুমাত্র ছাত্ররাই অংশ নিতে
পারবে, বাইরের কেউ নয়।

এরশাদ ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করে দিতে চেয়েছিলেন- এ প্রসঙ্গ তুলে জিএম
কাদের বলেন, শেষে তিনি (এরশাদ) নিজেই ছাত্র রাজনীতির গুরুত্ব অনুধাবন
করেছিলেন। আমরা ছাত্র সমাজকে পৃষ্ঠপোষকতা করব। তবে লেজুড়বৃত্তি করা যাবে
না। আমরা লাঠিয়াল বাহিনী তৈরি করব না। ছাত্র সমাজকে এলাকার পাশাপাশি
ক্যাম্পাসভিত্তিক রাজনীতি করতে হবে।

জাতীয় ছাত্র সমাজ ব্যক্তিস্বার্থের উর্ধ্বে উঠে দেশের জন্য কাজ করার একটি শক্তিশালী প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

জাতীয় ছাত্রসমাজ কেন্দ্রীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক মো. জামাল
উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য
জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, আদেলুর রহমান আদেল, রেজাউল ইসলাম প্রমুখ।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)