খুলনায় অতিরিক্ত মদপানে ৮ জনের মৃত্যু

১০ অক্টোবর ২০১৯

খুলনা ব্যুরো

খুলনায় দুর্গোৎসবের প্রতিমা বিসর্জনের পর অতিরিক্ত মদপানে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বুধবার তাদের মৃত্যু হয়। অতিরিক্ত মদপানে তাদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন।

মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন- নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার গল্লামারী পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ রায়, তার বড় ভাই তাপস দাস, খুলনা সদর থানা এলাকার গ্ল্যাক্সো মোড়ের সুজন শীল, খুলনা জেনারেল হাসপাতাল সড়কের রাহুল বিশ্বাস রাজু, রূপসা উপজেলার রাজাপুর গ্রামের পরিমল দাস, একই গ্রামের সমীর বিশ্বাসের স্ত্রী ইন্দ্রানী বিশ্বাস ও নির্মল দাসের ছেলে দীপ্ত দাস এবং নগরীর রায়পাড়া ক্রস রোডের অমিত শীল। তাদের মধ্যে রাহুল গোপালগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। পরিমল দাস সেলুন মালিক। আর সুজন শীল রূপসার বঙ্গবন্ধু কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. কামরুজ্জামান জানান, গত মঙ্গলবার রাতে অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে পাঁচজন অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাতেই তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে বুধবার সকালে তারা মারা যান। এ ঘটনায় খুলনা ও সোনাডাঙ্গা থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

রূপসা থানার ওসি মোল্লা জাকির হোসেন জানান, রূপসা উপজেলার রাজাপুর গ্রামের পরিমল দাস অতিরিক্ত মদ্যপানে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

খুলনার সিভিল সার্জন ডা. এএসএম আবদুর রাজ্জাক জানান, অতিরিক্ত মদ্যপানে নগরীর পাঁচজন ও রূপসা উপজেলায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান জানান, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত বলা যাবে তারা অতিরিক্ত মদ খেয়েছিলেন কি-না বা মদের মধ্যে বিষাক্ত কিছু ছিল কি-না। মদের উৎস সন্ধান এবং বিক্রেতাদের আটকের চেষ্টা চলছে।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে বিকেলে তাদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।





© সমকাল 2005 - 2020

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭ (প্রিন্ট পত্রিকা), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) । ইমেইল: [email protected]