দুশ্চিন্তা বাড়াল স্ক্যান রিপোর্ট

সাইফউদ্দিনের ভারত সফর অনিশ্চিত

২১ অক্টোবর ২০১৯

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাটোতোর ছাড়পত্র পেয়েই মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে ভারত সফরের দলে নেওয়া হয়। ভারতের বিপক্ষে টি২০ সিরিজে খেলার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন সাইফউদ্দিনও। কিন্তু গতকাল তার এবং জাতীয় দল ম্যানেজমেন্টের দুশ্চিন্তা বাড়িয়ে দিয়েছে একটি স্ক্যান রিপোর্ট। বিসিবির মেডিকেল টিম এবং ফিজিও নির্বাচকদের জানিয়েছেন, সাইফউদ্দিনের শরীরের স্ক্যানে ধরা পড়েছে চোট গুরুতর। ১০ বছরের পুরনো কোমরের ব্যথা নিয়ে খেললে বড় ধরনের ক্ষতি হয়ে যেতে পারে তার। শনিবারই স্ক্যান রিপোর্ট হাতে পেয়েছে বিসিবি মেডিকেল টিম। সাইফউদ্দিনের ভাগ্য নির্ধারিত হবে আজ ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে। ভারতে খেলতে যাওয়া না যাওয়ার সিদ্ধান্ত সাইফউদ্দিনকেই নিতে হবে বলে জানান বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

দেশের মাঠে ত্রিদেশীয় টি২০ সিরিজ খেলার পর থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে সাইফউদ্দিনকে। ফিটনেস ধরে রাখতে দৌড়ঝাঁপও করতে দেওয়া হয়নি। ফিজিও জুলিয়ানের পর্যবেক্ষণে আছেন তিনি। বিনাশ্রম বিশ্রামেও তার কোমরের ব্যথা সারেনি। বরং লন্ডনের ন্যাশনাল স্পোর্টস ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শে পুরো শরীরের স্ক্যান করে ভালোই হয়েছে। ২৩ বছর বয়সী এই বোলারের কোমরের ব্যথার উৎস এবং গভীরতা বেরিয়ে এসেছে। ব্যথা ব্যবস্থাপনায় যা সারার নয় বলেই মনে করা হচ্ছে। লন্ডনের ন্যাশনাল স্পোর্টস ইনস্টিটিউট থেকে এই স্ক্যান রিপোর্ট চাওয়া হয়েছিল।

বিসিবির প্রধান ফিজিশিয়ান দেবাশীষ চৌধুরী, জাতীয় দলের ফিজিও জুলিয়ান এবং দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন, হাবিবুল বাশার আজ সাইফউদ্দিনকে নিয়ে বৈঠকে বসবেন। যেখানে সমস্যা সম্পর্কে উপস্থাপন করা হবে। এরপর সাইফউদ্দিনের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়ে একটা সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান দেবাশীষ চৌধুরী। তিনি বলেন, 'খেললে সাইফউদ্দিনের ক্ষতি হবে। ব্যথানাশক ইনজেকশন দিলে সমস্যা মিটবে না। খেললে বড় ধরনের সমস্যাও হতে পারে। তবে কোনো খেলোয়াড়ের খেলা না খেলার ব্যাপারে আমরা সিদ্ধান্ত দিতে পারি না। মেডিকেলি যে সমস্যা আছে এবং হতে পারে সেগুলো নির্বাচকদের জানাব। সেখানে সাইফউদ্দিনও থাকবে। এরপর উনারা বাকি সিদ্ধান্ত নেবেন।'

পুরনো ব্যথা নিয়েই ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলেছেন সাইফউদ্দিন। ব্যথা নিয়ন্ত্রণে রাখতে দু'বার 'হাই পাওয়ারের' ইনজেকশন নিতে হয়েছে তাকে। বিশ্বকাপ শেষে সাইফউদ্দিনের উন্নত চিকিৎসার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি। লন্ডনের ন্যাশনাল স্পোর্টস ইনস্টিটিউটে সাইফউদ্দিনের বায়োমেকানিক্যাল পরীক্ষা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। জাতীয় দলের খেলা থাকায় চার মাসেও ২৩ বছর বয়সী এই বোলারকে ইংল্যান্ডে পাঠানো সম্ভব হয়নি। এ ছাড়া সাইফউদ্দিনও চাননি লম্বা সময় খেলার বাইরে চলে যেতে। তার ইচ্ছা, কোমরের ব্যথা নিয়ন্ত্রণে রেখে টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলা চালিয়ে যাওয়া। কারণ ইংল্যান্ডের বিশেষজ্ঞরা দেবাশীষ চৌধুরীকে জানিয়েছেন, বায়োমেকানিক্যাল পরীক্ষার পর সুস্থ হয়ে খেলায় ফিরতে ছয় থেকে সাত মাস লেগে যেতে পারে। চিকিৎসা চলাকালে কোনো ধরনের খেলাধুলা করতে পারবেন না সাইফউদ্দিন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)