ডোবা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

১৭ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

শিহাবুল ইসলাম শিশির

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় ডোবা থেকে শিহাবুল ইসলাম শিশির নামের এক শিক্ষার্থীর ্মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে মুক্তাগাছা শহরের একটি ডোবা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিশির মুক্তাগাছা শহরের লক্ষ্মীখোলা এলাকার অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য খন্দকার হাবিবুর রহমানের ছেলে। তিনি দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড অ্যান্ড প্রসেসিং বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

নিহতের পরিবারের বরাতে পুলিশ জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখার পাশাপাশি মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন শিশির। চলতি বছর জুন মাসে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা থানায় শিশিরের নামে মাদক মামলা হয়। ওই মামলায় সে জেলও খাটে। মাদকের টাকার জন্য তার বাবা মা’র সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো। এ নিয়ে শিশিরের বাবা-মা সব সময় অশান্তিতে ভুগতেন। মাদকাসক্ত হয়ে অবাধ্য হয়ে যাওয়ায় বাবা-মা'র সঙ্গে তার যোগাযোগ কমে যায়। পরে রোববার দুপুরে মুক্তাগাছার একটি ডোবা থেকে শিশিরের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শিশিরের বাবা খন্দকার হাবিবুর রহমান বলেন, তার ছেলে কবে, কখন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মুক্তাগাছায় ফিরেছে বিষয়টি তাদের জানা নেই। থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধারের পর তারা জানতে পারেন তাদের সন্তান মারা গেছে। এর বাইরে তিনি আর কিছুই জানেন না।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ময়মনসিংহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিন সমকালকে বলেন, এ বছর জুন মাসে শিশির মাদকদ্রব্যসহ মুক্তাগাছা থানা পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়। এরপর সে জামিনে মুক্ত হয়ে আবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে যায়।

পুলিশ সুপার আরো বলেন, রোববার মুক্তাগাছার একটি পুকুর থেকে শিশিরের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার জামার পকেটে মাদকের আলামত পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, মাদকাসক্ত হয়ে ডোবায় পড়ে সে মারা গেছে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)