সেভেন সিস্টারস জলপ্রপাত

প্রকাশ: ২৬ ডিসেম্বর ১৯ । ১৩:১৮ | আপডেট: ২৬ ডিসেম্বর ১৯ । ১৩:২৫

অনলাইন ডেস্ক

উত্তর-পূর্ব ভারতে শুধু যে ‘সেভেন সিস্টারস স্টেটস’ই আছে তা নয়, সেখানে আছে ‘সেভেন সিস্টারস জলপ্রপাতও’। মেঘালয় রাজ্যের খাসি পাহাড় জেলা থেকে ১ কিলোমিটার দক্ষিণে মাওসমাই গ্রামে এ জলপ্রপাতটি অবস্থিত। 

নামের মতোই সেভেন সিস্টারস জলপ্রপাতে সাতটি জলপ্রপাত রয়েছে। এগুলোর কোনোটি পাশাপাশি উঁচু, কোনোটি বা আবার শক্ত পাথরের উপরে পাশাপাশি সাজানো। জলপ্রপাতগুলো এমনভাবে বিস্তৃত যে দূর থেকেও এগুলোর অস্তিত্ব টের পাওয়া যায়। বিশেষ করে বৃষ্টি হলে পুরো অঞ্চলটি অদ্ভুতভাবে জীবন্ত হয়ে ওঠে। 

পাহাড়ের সবুজ গাছপালার মাঝে ভাঁজে ভাঁজে ঢুকে পড়েছে এ জলপ্রপাতটি। এর পানি চুনাপাথরের উপরে আঁচড়ে পড়ায় পানি পড়ার গর্জন শোনা যায় অনেক দূর থেকেও। 

 সবুজ পাহাড়ে মাঝে অবস্থান দৃষ্টিনন্দন এ জলপ্রপাতটির

পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে এ অঞ্চলে বিশ্রঅম নেওয়ার জন্য একটি ছাউনি এবং ক্যাফেটেরিয়াও তৈরি করা হয়েছে। 

সবুজ পটভূমির বিপরীতে জলপ্রপাতের অবস্থান স্থানটিকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে। আজকাল ফটোগ্রাফি করতে কিংবা পরিবার-পরিজন নিয়ে অনেকেই ঘুরতে যান এ জলপ্রপাতের কাছে।  

শুধু এ জলপ্রপাত নয়, এ অঞ্চলে আরও কয়েকটি স্পট রয়েছে যা দেখার মতো। এখানকার মাওসমাই গুহা, জীবন্ত রুট ব্রিজ, নোহকালিকাই জলপ্রপাত এবং চেরাপুঞ্জি ভ্রমণ আপনাকে আনন্দ দেবে। 

একদিনের বেশি সেখানে থাকলে মাওলিননং গ্রাম এবং ডাওকিতে কিছুটা সময় ব্যয় করতে পারেন। এছাড়া খাসি সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি জানতে চাইলে তাদের গ্রামগুলোও ঘুরে দেখতে পারেন। 

‘সেভেন সিস্টারস জলপ্রপাত’ দেখার জন্য সবচেয়ে সেরা সময় বর্ষা । কারণ এ সময় জলপ্রপাতটি পূর্ণ রূপ মেলে ধরে। ‘সেভেন সিস্টারস জলপ্রপাত’ ভ্রমণে যেতে চাইলে জুন থেকে সেপ্টেম্বর সময়টা বেছে নিতে পারেন। অবশ্য চাইলে যেকোনো সময়ে এ জলপ্রপাত দেখতে যেতে পারেন মাওসমাই গ্রামে। 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com