রাজনীতি

আ'লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শাহেদ চৌধুরী

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গত মঙ্গলবার ৭৮টি সাংগঠনিক জেলার শীর্ষ নেতাদের কাছে পাঠানো চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনার কথা জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য সাংগঠনিকভাবে চারটি নির্দেশ কার্যকরে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের তাগিদ রয়েছে ওবায়দুল কাদেরের চিঠিতে। ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর দলের ২১তম জাতীয় কাউন্সিলের পর সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন। এ জন্য আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের চারটি নির্দেশ পালনের কথা বলা হয়েছে।

চার নির্দেশনা অনুযায়ী, আগামী ১ মার্চ থেকে দলের কেন্দ্রীয় দপ্তর থেকে সদস্য সংগ্রহ বই, ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র সংগ্রহ করতে হবে। সারাদেশে সদস্য সংগ্রহ অভিযান জোরদার করার লক্ষ্যেই এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে। এ ছাড়া ৬ মার্চের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ সাংগঠনিক উপজেলা, থানা, পৌরসভা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ডের সম্মেলন সম্পন্ন করতে হবে। সেইসঙ্গে মুজিববর্ষ উদযাপনের জন্য কেন্দ্রের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মসূচি গ্রহণ করতে হবে। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, যেসব সাংগঠনিক জেলার  সম্মেলন হয়েছে, অতিদ্রুত সেসব জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয় দপ্তরে জমা দিতে হবে। যেসব সাংগঠনিক জেলায় এখনও সম্মেলন হয়নি, বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত চারজন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও আটজন সাংগঠনিক সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেসব সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন সম্পন্ন করতে হবে।

এ নির্দেশনা অনুযায়ী, মাহবুবউল-আলম হানিফ সিলেট ও চট্টগ্রাম, ডা. দীপু মনি ঢাকা ও ময়মনসিংহ, ড. হাছান মাহমুদ রংপুর ও রাজশাহী, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম খুলনা ও বরিশাল বিভাগের আওতাধীন জেলাগুলোর সম্মেলন কার্যক্রম দেখভাল করবেন। তাদের সঙ্গে বিভাগওয়ারি দায়িত্ব পালন করবেন চট্টগ্রামে আহমদ হোসেন, খুলনায় বি এম মোজাম্মেল হক, রংপুরে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, রাজশাহীতে এস এম কামাল হোসেন, ঢাকায় মির্জা আজম, বরিশালে অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ময়মনসিংহে সফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ও সিলেটে সাখাওয়াত হোসেন শফিক।

এই নেতাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বিদায়ী কার্যনির্বাহী সংসদের মেয়াদকালে ৭৮টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে ৩৩টির সম্মেলন হলেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি। এই জেলাগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি দ্রুত জমা দিতে হবে। জেলাগুলো হচ্ছে- ঢাকা দক্ষিণ, ঢাকা উত্তর, সুনামগঞ্জ, সিলেট, সিলেট মহানগর, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, কুমিল্লা মহানগর, কুমিল্লা উত্তর, ফেনী, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম উত্তর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ, খাগড়াছড়ি, বান্দরবান, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারী, লালমনিরহাট, রংপুর, রংপুর মহানগর, কুড়িগ্রাম, বগুড়া, রাজশাহী, কুষ্টিয়া, যশোর, নড়াইল, বাগেরহাট, খুলনা, খুলনা মহানগর, সাতক্ষীরা, বরিশাল মহানগর, পটুয়াখালী ও ঝালকাঠি।

৪৫টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে বেশিরভাগের মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে। এসব জেলার সম্মেলন আয়োজনের প্রস্তুতি নেওয়ার কথাও রয়েছে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের চিঠিতে। জেলাগুলো হচ্ছে- টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, ঢাকা, গাজীপুর, গাজীপুর মহানগর, নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, ময়মনসিংহ মহানগর, নেত্রকোনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা দক্ষিণ, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রাম মহানগর, কক্সবাজার, রাঙামাটি, পঞ্চগড়, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, জয়পুরহাট, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী মহানগর, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ, মাগুরা, বরগুনা, ভোলা, বরিশাল ও পিরোজপুর।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: [email protected] (প্রিন্ট), [email protected] (অনলাইন)