ধামরাই

অবৈধ কারখানায় চলছে ব্যাটারি উৎপাদন

পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্দেশ অমান্য

২৬ মার্চ ২০২০

মোকলেছুর রহমান, ধামরাই (ঢাকা)

সারাদেশে যখন করোনাভাইরাস আতঙ্কে জনজীবনে স্থবিরতা নেমে এসেছে ঠিক সে মুহূর্তে কয়েকজন চীনা নাগরিক পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্দেশ অমান্য করে ফের ঢাকার ধামরাইয়ে জিয়াং সু স্টোরেজ নামে একটি অবৈধ ব্যাটারি কারখানা চালু করে স্থানীয় শ্রমিক দিয়ে ব্যাটারি উৎপাদন শুরু করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অবৈধ এ কারখানাটি এক মাস আগে পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানাসহ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পর উৎপাদন বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছিল। কিন্তু সেই নির্দেশনা উপেক্ষা করে মঙ্গলবার থেকে ফের ব্যাটারি তৈরি শুরু করেছে তারা।

জানা গেছে, কয়েকজন চীনা নাগরিক সাত বছর আগে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়াই ধামরাইয়ের সূতিপাড়া ইউনিয়নের বেলীশ্বর গ্রামে জিয়াং সু স্টোরেজ নামে একটি কারখানায় অবৈধভাবে ক্ষতিকর সিসা দিয়ে ইজিবাইক ও হ্যালোবাইকের ব্যাটারি তৈরি করে আসছিল। ওই কারখানার বিষাক্ত পানি সরাসরি পাশের বিলে ও কৃষি জমিতে গিয়ে পড়ে। এতে বিলের লাখ লাখ টাকার মাছ মরে গেছে এবং জমিতে কোনো ফসল হয় না। এ নিয়ে সমকালে একাধিক সংবাদ প্রকাশের পর গত ১৯ ফেব্রুয়ারি পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজিদ আহমেদ ওই কারখানায় অভিযান চালিয়ে এক লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নসহ উৎপাদন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তু সেই পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্দেশ উপেক্ষা করেই গত মঙ্গলবার থেকে আবার কারখানায় উৎপাদন শুরু করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক শ্রমিক জানান, গত রোববার শ্রমিকদের বাড়িতে খবর দিয়ে মঙ্গলবার থেকে ফের কারখানার কাজে যোগদান করিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সারাদেশে করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেও পেটের দায়ে কাজ করছি।

এ বিষয়ে গতকাল বুধবার মোবাইল ফোনে পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলার উপপরিচালক সাহিদা বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, জিয়াং সু স্টোরেজ ব্যাটারি কারখানাকে পরিবেশের ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি। এখন যদি তারা কারখানাটি চালু ও ব্যাটারি উৎপাদন করে তাহলে ফের অভিযান পরিচালনা করা হবে।

এ ব্যাপারে ধামরাইয়ের বেলীশ্বর গ্রামে অবস্থিত জিয়াং সু স্টোরেজ ব্যাটারি কারখানার পরিচালক জংয়ের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)