'বঙ্গবন্ধুর খুনি মোসলেহউদ্দিনকে পাওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে'

প্রকাশ: ২০ এপ্রিল ২০ । ১৫:১৩ | আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০ । ১৫:৫০

সাহাদাত হোসেন পরশ

রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেহউদ্দিন আহমেদ। পুরনো ছবি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম খুনি রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেহউদ্দিন আহমেদ ভারতে ধরা পড়ার বিষয়ে দেশটির গণমাধ্যমের খবরের ভিত্তিতে যোগাযোগ শুরু করেছে বাংলাদেশ। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলাদেশ পুলিশের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, তাকে (মোসলেহউদ্দিন) পাওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে এ নিয়ে বাংলাদেশের কোনো সংস্থার পদস্থ কর্মকর্তারা আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দিতে রাজি হননি। এ বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারি মহাপদির্শক (এআইজি) ও ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরোর (এনসিবি) প্রধান মহিউল ইসলাম সমকালকে বলেন, ‌'আমরা অফিসিয়ালি মোসলেহউদ্দিনকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানি না। ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। সেটার অফিসিয়াল উত্তর এখনো পাইনি।'

মহিউল ইসলাম জানান, ভারতে লকডাউন চলছে। অনেক কর্মকর্তা কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এ জন্য উত্তর পেতে দেরি হচ্ছে।

তবে পুলিশের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, বঙ্গবন্ধুর খুনি আব্দুল মাজেদকে যেভাবে পাওয়া গিয়েছিল, একইভাবে মোসলেহউদ্দিনকে পাওয়া যেতে পারে।

তিনি আরও জানান, ভারতের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে মোসলেহউদ্দিন আটক হবার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

এরই মধ্যে বাংলাদেশের পররাষ্ট মন্ত্রণালয়ও ভারতীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও যোগাযোগ করেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এ বিষয়ে বলেন, ‌'ভারতীয় গণমাধ্যমে আমরা তাকে (মোসলেহউদ্দিন) গ্রেপ্তারের বিষয়ে জেনেছি। এখনও আমরা নিশ্চিত হতে পারিনি।'

বঙ্গবন্ধুর আরেক খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আব্দুল মাজেদকে কিছুদিন আগে আটক করা হয়। এরপর তার ফাঁসিও কার্যকর হয়েছে। তিনিও দুই দশকের বেশি সময় ভারতে পালিয়ে ছিলেন।

সোমবার কলকাতাভিত্তিক আনন্দবাজার পত্রিকার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বঙ্গবন্ধুর আরেক খুনি রিসালদার (বরখাস্ত) মোসলেহউদ্দিনও ভারতে অবস্থান করছেন। ভারতীয় গোয়েন্দাদের সহযোগিতায় মোসলেহউদ্দিন এরই মধ্যে আটক হয়ে থাকতে পারেন। 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com