সরকারের উদ্যোগের অভাবে বন্যার্তদের হাহাকার বাড়ছে: সিপিবি

৩১ জুলাই ২০২০ | আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২০

সমকাল প্রতিবেদক

বন্যা পরিস্থিতির ক্রমাবনতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) নেতারা বলেছেন, করোনা মহামারির মধ্যেই বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ ও দীর্ঘস্থায়ী রূপ নিয়েছে। মানুষের দুর্ভোগ অন্য যেকোনো সময়ের বন্যার চেয়ে এবারের বন্যায় অনেক বেড়ে গেছে। বন্যা মোকাবিলায় সরকারের আগাম প্রস্তুতি না থাকায় ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণও অনেক। সরকারের যথাযথ উদ্যোগের অভাবে বন্যার্ত মানুষের হাহাকার বাড়ছে। 

শুক্রবার সিপিবি’র ‘কভিড-১৯ রেসপন্স টিমে’র ভার্চুয়াল সভায় নেতারা এসব কথা বলেন।

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য লক্ষ্মী চক্রবর্তী, রফিকুজ্জামান লায়েক, মিহির ঘোষ, শাহীন রহমান, আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আহসান হাবিব লাবলু, রুহিন হোসেন প্রিন্স, কোষাধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডা. ফজলুর রহমান। 

সভার শুরুতে কমরেড রতন সেনের ২৮তম হত্যা দিবসে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। নেতারা আরও বলেন, করোনার মধ্যে মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে বন্যা দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে ৩১ জেলা প্লাবিত হয়েছে। বন্যার ভয়াবহতা বাড়ছে। নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে ঢাকার নিম্নাঞ্চল ডুবে গেছে। কয়েক লাখ মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে খোলা আকাশের নিচে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন। সরকারের প্রাক-প্রস্তুতি থাকলে ক্ষয়ক্ষতি কমানো সম্ভব হতো। কিন্তু আমলাদের ওপর নির্ভরশীল সরকারের যথাযথ উদ্যোগের অভাব পরিস্থিতিকে জটিল করে তুলেছে। দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা, অনিয়মের কারণে সরকারের সীমিত ত্রাণও লুট হয়ে যাচ্ছে।  নেতারা আরও বলেন, বন্যার্ত মানুষ বাঁচাতে জরুরিভিত্তিতে সরকারকে ত্রাণ, আশ্রয়, পুনর্বাসন ও চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। পাশাপাশি বিভিন্ন বেসরকারি-সামাজিক সংগঠন এবং বিত্তবান মানুষকে বানভাসী মানুষ বাঁচাতে এগিয়ে আসতে হবে।

বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সিপিবি’র বিভিন্ন স্তরের কমিটিগুলোর প্রতি আহ্বান জানান নেতারা।   

© সমকাল ২০০৫ - ২০২০

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)