যুক্তরাষ্ট্রে 'লরা'র তাণ্ডবে মৃত্যু বেড়ে ১৪

প্রকাশ: ২৯ আগস্ট ২০ । ১১:৪১ | আপডেট: ২৯ আগস্ট ২০ । ১১:৪৭

অনলাইন ডেস্ক

ঝড়ের প্রভাবে লু্ইজিয়ানায় সৃষ্ট বন্যায় বাড়ি-ঘর তলিয়ে যায়। ছবি: এপি

যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলীয় স্টেট লুইজিয়ানা ও টেক্সাসে আঘাত হানা প্রবল শক্তিশালী হারিকেন লরার তাণ্ডবে অন্তত ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ১০ জন লুইজিয়ানার ও টেক্সাসের চারজন। 

বৃহস্পতিবার ভোরে ক্যাটাগরি চার মাত্রার সামুদ্রিক ঝড়টি আছড়ে পড়ে। ঝড়ের প্রভাবে দুই রাজ্যের সীমান্ত এলাকায় আকস্মিক বন্যা দেখা দেয়। ওই দুই রাজ্যের অন্তত ৫ লাখ মানুষ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। হারিকেনের আঘাতে একটি শিল্প প্ল্যান্টে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাও ঘটেছে। খবর বিবিসির

বর্তমানে লরার অবস্থা গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড়ে নেমে এলেও বেশ কয়েকটি রাজ্যে এখনও ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

হারিকেনের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সহায়তার জন্য ফেডারেল সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন লু্ইজিয়ানার গভর্নর জন বেল এডওয়ার্ডস। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষতিগ্রস্তদের অবস্থা দেখতে শনিবার ওই দুই রাজ্যে যাবেন বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। 

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানিয়েছে, লুইজিয়ানার ক্যামেরন শহেরে আছড়ে পড়ার সময় হারিকেন লরার বাতাসের গতিবেগ ছিল প্রতি ঘণ্টায় ১৫০ মাইল। এটাই যুক্তরাষ্ট্রে চলতি বছরে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়। 

সংবাদমাধ্যমসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ছবি ও ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় উপকূলীয় এলাকার আশপাশের রাস্তাঘাট তলিয়ে গেছে। বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে অন্ধকারে কাটাচ্ছে পুরো এলাকা। 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com