জরুরি ব্যবহারে অনুমতি পেল চীনের করোনা টিকা

প্রকাশ: ২৯ আগস্ট ২০ । ২১:২৫ | আপডেট: ৩০ আগস্ট ২০ । ০৩:১৫

অনলাইন ডেস্ক

চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা-রয়টার্স

সিনোভ্যাক বায়োটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা শেষ ধাপের ট্রায়ালে উত্তীর্ণের অপেক্ষায় থাকলেও জরুরি ব্যবহারে মানুষের শরীরে প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে দেশটি।

চীনের স্বাস্থ্যকর্মীদের মতো যারা করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন, তাদের ক্ষেত্রে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে শনিবার জানানো হয়েছে। 

রাষ্ট্র পরিচালিত চায়না ন্যাশনাল ফার্মাসিউটিক্যাল-এর (সিনোফার্মা) একটি ইউনিট চায়না ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপও (সিএনবিজি) বলেছে গত রোববার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম উইচ্যাটের মাধ্যমে তারা এই ভ্যাকসিন প্রয়োগের অনুমতি পেয়েছে। খবর রয়টার্স ও বিবিসির

সংক্রমণের ক্ষেত্রে উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে পরীক্ষামূলকভাবে গত মাস থেকে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে আসছে চীন। গত সপ্তাহে রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রচারিত সাক্ষাৎকারে স্বাস্থ্য বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, আসন্ন হেমন্ত ও শীত মৌসুমে সংক্রমণ ঠেকাতে এই ভ্যাকসিনের ব্যবহার আস্তে আস্তে বাড়ানো হবে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, গত জুনেই নির্দিষ্ট দুটি ভ্যাকসিনের প্রতিরোধ ক্ষমতা যাচাইয়ের আগেই জুলাইয়ে দুইজন আগ্রহী প্রার্থীকে তা  প্রয়োগের অনুমতি দেয়া হয়েছিল। তবে এরা কারা, তা বিশদ কিছু বলেনি সরকার।

এর আগে জুন মাসে চীন থেকে বিদেশযাত্রী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সিএনবিজি’র তৈরি দুটি ভ্যাকসিনের একটি প্রয়োগের অনুমতি দেয়া হয়েছিল।  

উল্লেখ্য, সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত সাতটি প্রতিষ্ঠান করোনার টিকা তৈরি করছে। এর মধ্যে চারটি টিকাই চীনের। তবে এখনো একটি টিকাও শেষ ধাপের ট্রায়ালে উত্তীর্ণ হতে পারে নি। 

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com