কুমিল্লার 'মেয়রের রেফারেন্সে' রাজশাহীতে এল ৫২ কেজি গাঁজা, গ্রেফতার ৬

প্রকাশ: ৩১ আগস্ট ২০ । ১৯:৪৩ | আপডেট: ৩১ আগস্ট ২০ । ২১:০৯

 রাজশাহী ব্যুরো

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের 'মেয়রের রেফারেন্সে' কুরিয়ার সার্ভিসে বুকিংয়ের পর রাজশাহীতে আসা খাটের বক্সের ভেতর থেকে ৫১ কেজি ৯০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ সময় ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু কিছু জানেন না বলে জানান।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর বোয়ালিয়া থানা মোড়ে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের ডেলিভেরি কার্যালয়ে এ অভিযান চালায় র‌্যাব-৫ এর রাজশাহীর মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি দল। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রাজশাহীর পবা উপজেলার দুয়ারী গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে দুলাল (৩০), তানোরের দেউরাতলা গ্রামের ফজর আলীর ছেলে তোফাজ্জল হোসেন (২৪), একই উপজেলার সেদায়ের এলাকার মৃত. আফসার আলীর ছেলে বাদশা (৩২), সিধাইড় গ্রামের মেরাজ উদ্দিনের ছেলে সোহান আলী (২১), ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার বেলতলি এলাকার সুলতান আহমেদের ছেলে মুকতুল হোসেন (৩২) এবং একই থানার মাদলা এলাকার আবদুর রহিমের ছেলে বাপ্পি (৩০)। তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব জানায়, গত ২৮ আগস্ট কুমিল্লায় কিছু আসবাবপত্র বুকিং দেওয়া হয়। রাজশাহীর হুমায়ুন কবীর নামে এক ব্যক্তির জন্য কুমিল্লার মুকতুল হোসেন সেগুলো বুকিং করেন।  বুকিংয়ের সময় কুমিল্লার মেয়রের নাম রেফারেন্স দেয়া হয় কুরিয়ারে। সোমবার সকালে ছয়জন মালামাল নিতে এলে তারা একে একে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন। এ সময় র‌্যাব একটি খাটের বক্সের ভেতর লুকানো ১৮টি প্যাকেটে ৫১ কেজি ৯০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে। এসব আসবাবপত্র বুকিংয়ের সময় রেফান্সে হিসেবে ‘মেয়র, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন’ লেখা হয়েছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু সমকালকে বলেন, 'আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। আমাকে না জানিয়ে কুরিয়ার সার্ভিস যদি আমার নামে রেফারেন্স নিয়ে মাদক পাঠায় তাহলে আমার কি করার আছে?'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com