জিলবাংলার লেনদেন স্থগিত

ওয়েস্টার্ন মেরিনের রাইট আবেদন বাতিল

১৫ সেপ্টেম্বর ২০ । ০০:০০ | আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০ । ০০:৫২

সমকাল প্রতিবেদক

অস্বাভাবিক দরবৃদ্ধির কারণে জিলবাংলা সুগার মিলসের লেনদেন স্থগিত করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার থেকে শেয়ারবাজারে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য এটির লেনদেন বন্ধ থাকবে।

এদিকে তালিকাভুক্তির এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে 'নো ডিভিডেন্ড' ঘোষণা করেছে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স। গতকাল কোম্পানির পর্ষদ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ সংবাদ জানার পর কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ নির্বাহীদের ডেকে পাঠিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি। আজ কমিশনে হাজির হয়ে তাদের এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

জিলবাংলার লেনদেন স্থগিত : বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) গতকাল সোমবার এক আদেশে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত রাষ্ট্রীয় মালিকানার কোম্পানি জিলবাংলার লেনদেন স্থগিতের নির্দেশনা দেয়। জেড ক্যাটাগরিভুক্ত লোকসানি কোম্পানির শেয়ারটির দর মাত্র তিন মাসের ব্যবধানে সোয়া ছয়গুণের বেশি বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) চলতি বছর ১৫ জুন এটির দর ছিল ৩৩ টাকা এবং ৩ সেপ্টেম্বর দিন শেষে সর্বশেষ মূল্য ছিল ২০৯ টাকা। এরপর দর কিছুটা কমে গত কয়েক দিনে আবার বাড়তে শুরু করে। গতকাল সোমবার দিনের এক পর্যায়ে ২১৮ টাকা পর্যন্ত ওঠে এবং সর্বশেষ মূল্য ছিল ২১৩ টাকা ১০ পয়সা।

বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী-রুবাইয়াত-উল ইসলাম স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়, জিলবাংলার শেয়ারে অস্বাভাবিক লেনদেন এবং দামের তারতম্য লক্ষ্য করা গেছে। জনস্বার্থে ডিএসইতে এ শেয়ারের লেনদেন স্থগিত থাকা প্রয়োজন বলে কমিশন মনে করে। এ বিষয়ে সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, এ শেয়ারের অস্বাভাবিক দরবৃদ্ধির পেছনে কারসাজি হয়েছে। বিষয়টি কমিশন খতিয়ে দেখবে। এ নিয়ে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত শেয়ারটির লেনদেন স্থগিত থাকবে। একই সঙ্গে অন্য 'জেড' ক্যাটাগরির শেয়ার নিয়ে কারসাজির বিষয়েও কঠোর হবে কমিশন।

ওয়েস্টার্ন মেরিনের রাইট বাতিল :এদিকে শর্ত পূরণ না করায় ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের রাইট শেয়ার আবেদন বাতিল করা হয়েছে। গতকাল কমিশন থেকে এ-সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে দুটি শেয়ারের বিপরীতে একটি শেয়ার (১ :২) বিক্রি করতে আবেদন করেছিল। কোম্পানিটি এ প্রক্রিয়ায় প্রায় ১০ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৯৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকা মূলধন বাড়াতে চেয়েছিল।

এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের নো ডিভিডেন্ড :বীমা খাতের কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন দুই স্টক এক্সচেঞ্জে গত ২৪ আগস্ট শুরু হয়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ারটির সর্বশেষ দর ছিল গতকাল ৩১ টাকা ৩০ পয়সা। তালিকাভুক্তির তিন সপ্তাহের মাথায় কোম্পানির পর্ষদ গতকাল ২০১৯ সালের জন্য কোনো লভ্যাংশ না দেওয়ার সুপারিশ করেছে। এ সংবাদ জানার পর নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে ব্যাখ্যা জানতে কোম্পানির ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। বিএসইসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের এমন সিদ্ধান্ত শেয়ারবাজারের জন্য একটি খারাপ দৃষ্টান্ত। এর কারণ খতিয়ে দেখে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com