'দর্শকহীন ম্যাচ অনুশীলনের মতো'

২৩ ডিসেম্বর ২০ । ০০:০০

নিজের সপ্তম পিচিচি ট্রফি হাতে লিওনেল মেসি টুইটার

আরেকটা অর্জন, তবু ফুটবলের পুরোনো রূপের খোঁজে লিওনেল মেসি। মহামারির এই অবস্থা থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার স্বপ্ন। লিগে নিজের ঘুরে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা আর ভুল শুধরে আরেকটা শিরোপা উৎসবের অপেক্ষা- স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার দেওয়া পিচিচি ট্রফি হাতে নিয়ে এসবের গল্পই শুনিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা। রেকর্ড সপ্তম পিচিচি ট্রফি নিয়ে বার্সাকে দিন শেষে বিজয়ের বেশেই দেখতে চান তিনি। তার কাছে আগে ক্লাব, পরে রেকর্ড। তবে দর্শকহীন ফুটবল যে একদমই পানসে লাগে, সেটাও বলতে ভুল করেননি ছয়বারের এই বর্ষসেরা।



প্রশ্ন :সাতটি পিচিচি ট্রফি জেতা বিস্ময়কর নয়?

মেসি :সত্যি বলতে, আমি কখনও চিন্তাও করিনি টেলমো জারাকে অতিক্রম করে ফেলব। এটা আমার কাছে খুবই আনন্দময়।

প্রশ্ন :আপনি কি অষ্টম পিচিচি জেতার কথা ভাবছেন?

মেসি :আমি জানি না, আসলে বাস্তবে সে চিন্তা নেই। এটা এমন কিছু নয়, যা আমাদের উদ্বিগ্ন করবে। আমি আবারও লা লিগা জিততে চাই, গত মৌসুমে যেটা আমরা পারিনি। তারপর না হয় পিচিচি নিয়ে ভাবব, তাই শুরুতে আমাদের যুদ্ধটা শিরোপা জেতার।

প্রশ্ন :এই মৌসুমে আমরা দেখছি, বার্সার লা লিগা আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পারফরম্যান্সে মধ্যে বড় একটা তফাৎ। আপনি কি মনে করেন দুটোই জেতা সম্ভব?

মেসি :এ ক্লাবটির হয়ে আমার সর্বদা চাওয়া থাকে সবকিছু জেতা, আমাদের চেষ্টাটা এবারও ব্যতিক্রম হবে না। আমরা একটু একটু করে উন্নতি করছি। এটা সত্য, আমাদের লিগে একটু খারাপ সময় যাচ্ছে। কোনোমতেই এত পয়েন্ট খোয়ানো আমাদের উচিত হয়নি। আমার মনে হয় আলাভেজ, গেটাফে আর রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচগুলোতে আমাদের আরও ভালো করা দরকার ছিল। এই তিন ম্যাচে আমরা গোল করার অনেক সুযোগ তৈরি করেছিলাম, যদি আমরা তাদের টপকাতে পারতাম তাহলে পরিস্থিতি ভিন্ন হতে পারত।

প্রশ্ন :লা লিগায় এখানকার অবস্থা থেকে উঠে আসার কোনো উপায় আছে?

মেসি :এখন আমাদের প্রতিটি ম্যাচে গুরুত্ব দিতে হবে, ভালো ফলের চেষ্টা করতে হবে; তাহলে যদি টেবিলের ওপরে ওঠা যায়। আসলে মহামারির এই সময়ে সব ম্যাচই কঠিন। এটা সত্য, ফুটবলে অনেক বদলেছে, যেটা সবার জন্যই এখন কঠিন। তবে ধাপে ধাপে সবকিছুই স্বাভাবিক মনে হবে।

প্রশ্ন :নয় মাস হয়ে গেল দর্শক ছাড়া খেলা হচ্ছে, এটা আপনার জন্য কঠিন নয়?

মেসি :হ্যাঁ, অনেক কঠিন। দর্শক ছাড়া খেলাটা ভয়ংকর। এটা কোনোমতেই ভালো অনুভূতির জন্ম দেয় না। যখন স্টেডিয়ামে কাউকে না দেখি, মনে হয় এটা কোনো অনুশীলন, ম্যাচ শুরুর আগে সেটা আরও বেশি মনে হয়। তাই যাদের বিপক্ষে আপনি খেলবেন তাদের হারানোও কঠিন হয়ে যায়। মহামারির কারণে ফুটবল অনেক বদলেছে, যেটা খুবই বাজে ব্যাপার। আশা করি এসব একদিন থাকবে না, আমরা আবারও স্টেডিয়ামে দর্শক দেখব; সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

প্রশ্ন :আপনি সম্প্রতি একটা স্পেশাল গোল করেছেন, যার পর দিয়েগো ম্যারাডোনাকে সম্মান জানিয়েছিলেন, একটু বলবেন?

মেসি :দিনটা খুবই স্পেশাল ছিল। আমি কিছুটা হলেও সম্মান জানাতে পেরেছি, যেটা আমি মনে এঁকেছিলাম। আমি তার জার্সিটা দেখাতে পেরেছি। এটা ওই দিনের জন্য এমন একটা বিস্ময়কর স্মৃতি, যা মনে করিয়ে দিয়েছিল দিয়েগো আর আমাদের সঙ্গে নেই।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com