রূপগঞ্জ

ভুলতা ফ্লাইওভারে জ্বলে না বাতি, বাড়ছে ছিনতাই

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা ফ্লাইওভারে রাতে জ্বলছে না কোন সড়কবাতি- সমকাল

রূপগঞ্জ উপজেলার অন্যতম মেগা প্রকল্প ভুলতা ফ্লাইওভারটি আলোহীন হয়ে পড়েছে। জ্বলছে না ফ্লাইওভারের একটি এলইডি লাইটও। ফ্লাইওভারে আলো না থাকায় এখানে একরকম ভূতুড়ে পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে প্রতিনিয়ত ঘটছে নানা অপরাধ।

গত বছরের ১৬ অক্টোবর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৩৫৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ফ্লাইওভারটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম কয়েক মাস ফ্লাইওভারের লাইটগুলো জ্বললেও, তারপর বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে ফ্লাইওভারে একটি লাইটও জ্বলছে না। এতে ফ্লাইওভার দিয়ে আসা যানবাহনগুলো চলছে নিরাপত্তাহীনতায়। তাই প্রতিনিয়ত ঘটছে ছিনতাইয়ের ঘটনা। এ ছাড়া রাতে মাদকসেবীরা এখানে মাদক সেবন করে বলেও জানা যায়।

গাউছিয়া মার্কেটের কাঁচাবাজারের পাশে ভুলতা ফ্লাইওভারের বিদ্যুতের মিটারটি এখনও চলমান রয়েছে। মিটার চলমান থাকলেও ফ্লাইওভারে ব্যবহূত লাইটগুলোতে আলো জ্বলছে না। আলো না থাকায় ছিনতাইকারী চক্র কৌশলে ফ্লাইওভার দিয়ে আসা-যাওয়ার সময় গাড়ি থামিয়ে ছিনতাই করছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন। এখানে আলো বা সিসি ক্যামেরা না থাকায় চারপাশ অন্ধকার হয়ে ভূতুড়ে পরিবেশ সৃষ্টি হয়। ফ্লাইওভারের আশপাশে ফেনসিডিলের খালি বোতল পড়ে থাকতে দেখা যায়। আলো না থাকায় এটি মাদক সেবনের নিরাপদ স্থানে পরিণত হয়েছে।

ফ্লাইওভারটি ভুলতা এলাকার যানজট নিরসনের লক্ষ্যে নির্মাণ করা হয়। ফ্লাইওভার নির্মাণের পর যানজট থেকে কিছুটা মুক্তি মিললেও ফ্লাইওভার দিয়ে আসা-যাওয়া যাত্রীরা ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছেন। এর ওপর ছিনতাইকারী চক্র গাড়ি পার্ক করে ছিনতাইয়ের জন্য অপেক্ষা করে। ফ্লাইওভার দিয়ে যানবাহন আসা-যাওয়ার সময় সুযোগ বুঝে গাড়ি থামিয়ে সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

কর্তৃপক্ষের নজরদারি না থাকায় ফ্লাইওভারটি রাতের অন্ধকারে ডুবে থাকে। এ অবস্থায় যানবাহন চলাচল হয়ে ওঠে ঝুঁকিপূর্ণ এবং মানুষের মনে বিরাজ করে আতঙ্ক।

উপজেলার গোলাকান্দাইল এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা জাহাঙ্গীর মাহমুদ বলেন, লাইট ছাড়া ফ্লাইওভার অনিরাপদ। লাইট না জ্বলায় রাতে ভুলতা ফ্লাইওভারে ভূতুড়ে পরিবেশ বিরাজ করে। প্রায়ই এখানে ছিনতাই ও যাত্রী হয়রানির ঘটনা ঘটছে।

ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর নাজিম উদ্দিন বলেন, ফ্লাইওভারে বাতি না জ্বলার কারণে অপরাধ বাড়ছে। কয়েক দিন আগে এখান থেকে এক ছিনতাইকারীকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি। ফ্লাইওভারের লাইটের ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও কোনো কাজ হয়নি। অপরাধপ্রবণতা কমাতে ফ্লাইওভারে পুলিশ নিয়মিত টহল দিচ্ছে।

ভুলতা ফ্লাইওভারের প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান বলেন, বকেয়া বিদ্যুৎ বিল না দিতে পারায় নারায়ণগঞ্জ-২ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি লাইনটি কেটে দেয়। বিল পরিশোধ করলে সংযোগ দেয়। মাঝে মাঝে এমন সমস্যা হয়।

নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২-এর ব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, ফ্লাইওভারের প্রায় দেড় বছরের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। ভুলতা ফ্লাইওভারে তাদের নিজেদের যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে লাইট জ্বলছে না।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ (প্রিন্ট), +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ (অনলাইন) | ইমেইল: samakalad@gmail.com (প্রিন্ট), ad.samakalonline@outlook.com (অনলাইন)