বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নিশের নতুন গানে শেকড়ের টান

প্রকাশ: ০৪ মার্চ ২১ । ২০:০৮ | আপডেট: ০৪ মার্চ ২১ । ২০:১৪

লন্ডন প্রতিনিধি

ছবি: সমকাল

ব্রিটেনে জন্ম ও বেড়ে ওঠা তরুণ প্রজন্মের শিল্পী নিশের। পুরো নাম সৈয়দ নিশাত মনসুর। বাংলা, ইংরেজি, পাঞ্জাবি, হিন্দি ও আরবি ভাষায় অনেক গান লিখেছেন। নিজের দেওয়া সুরে সেগুলো গেয়েছেনও তিনি। নিশের এসব গান ইউরোপ ছাড়াও এশিয়ান দেশগুলোর তরুণ প্রজন্মের কাছে জনপ্রিয়। 

বলিউডের জি রিসটে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের ব্যাকগ্রাউন্ডেও বেজেছে নিশের 'স্টান্ডিং বাই ইউ' গানটি। বাংলাদেশ, আমেরিকা ও ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হিসেবে নিয়মিত স্টেজ শো করেন নিশ।

২০১৯ সালেরর ডিসেম্বরে বৃহত্তর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিশ গিয়েছিলেন শেকড়ভূমি বাংলাদেশে। দেশটির অপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে বিমোহিত এই শিল্পী এখন শেকড়ের প্রেমে বিভোর।

গতকাল বুধবার বাংলাদেশ নিয়ে ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে নিশের নতুন একটি গান। 'হোম কামিং' শিরোনামের বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় লেখা গানটি রিলিজ হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হাজার হাজার ভিউ হয়েছে। গানটিতে বাংলাদেশের গ্রামীণ জনপদের ফুটেজ ব্যবহার করা হয়েছে, যার অধিকাংশই নিশের সফরকালে বিচ্ছিন্নভাবে মোবাইলে ধারণকৃত। 

গানটির কথায় ফুটে উঠেছে শেকড়ের প্রতি শিল্পীর হৃদয়ের টান। দেশের বাইরে জন্ম ও বেড়ে ওঠা প্রজন্মের প্রতি রয়েছে শেকড়ে ফেরার আহ্বান। গানটির একটি অংশে আছে, 'ঘুমিয়ে পড়লে আমি চলে যাই বাংলাদেশে, জেগে উঠে দেখি  লন্ডনে।'

এমন গান রচনায় কিভাবে উৎসাহী হলেন জানতে চাইলে নিশ সমকালকে বলেন, '২০১৯ সালের শেষদিকে পরিবারের সঙ্গে বাংলাদেশে গিয়েছিলাম। মা-বাবার সঙ্গে শেকড়ে ফিরে যাওয়ার কী যে এক অনুভূতি তা আমি টের পেয়েছি ওই সফরে!'

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই শিল্পী আরও বলেন, 'বাংলাদেশ সফরে ওই সময় লন্ডনে বেড়ে ওঠা মামাতো, খালাতো ভাইবোনসহ গ্রুপে ছিলাম আমরা মোট ২০ জন। ঢাকা ও সিলেটসহ গ্রামাঞ্চলে সদলবল ঘুরেছি আমরা। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে বসে একসঙ্গে উপভোগ করেছি বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশের অহংকার টাইগারদের লেখা।'

বাংলাদেশ ভ্রমণে কাজিনদের সঙ্গে নিশ। ছবি: সমকাল

শেকড়ভূমির গ্রামীণ সৌন্দর্যের বর্ণনা দিতে গিয়ে নিশ বলেন, ''সূর্যোদয়ের পর পারিবারিক কবরস্থানে পূর্বপ্রজন্মের সমাধিপাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আমরা উচ্চারণ করেছি 'আসসালামু আলাইকুম ইয়া আহলাল কুবুর।' শিশিরভেজা সকালে গ্রামের পথে হেঁটেছি। বাড়ির উঠানে মাটির চুলার পাশে বসে খড়ের আগুনে তৈরি শীতের পিঠার স্বাদ নিয়েছি সবাই মিলে একসঙ্গে। সমবয়সী  স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে বাড়ির আঙিনায় রাতে জমিয়েছি আড্ডা বাউল গানের তালে তালে। লুঙ্গি পরে বাড়ির পুকুরপাড়ে দাঁড়িয়ে দেখেছি জেলেদের মাছ ধরার দৃশ্য।''

তিনি বলতে থাকেন, ''সম্প্রতি আমি আক্রান্ত হয়েছিলাম কঠিন এক রোগে। আমার ভক্তদের প্রার্থনায় ও সৃষ্টিকর্তার কৃপায় এখন অনেকটা সুস্থ আমি। অসুস্থ অবস্থায় মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে আমার একটিই প্রার্থনা ছিল, প্রকৃতির সৌন্দর্যসুধা আরও দীর্ঘকাল উপভোগের সুযোগ পাই যেন। অসুস্থ অবস্থায়ও আমি বারবার স্বপ্নে ফিরে গিয়েছি আমার শেকড়ভূমিতে। মোটামোটি সুস্থ হওয়ার পর আমি তৈরি করেছি 'হোম কামিং' শিরোনামের গানটি। এখন অপেক্ষায় আছি কখন আবার বাংলাদেশগামী ফ্লাইটে উঠব।''

নিশ বলেন, 'আমি মনে করি, আমাদের শেকড়ভূমি যে অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি, এই ম্যাসেজটি আমাদের এই প্রজন্মের কাছে পৌঁছানো উচিত। শিল্পী হিসেবে একমাত্র গানের মাধ্যমেই ম্যাসেজটি পৌঁছাতে পারি আমি। সেই উদ্দেশ্য নিয়েই গানটি করা।'

প্রবাসে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের প্রতি তরুণ এ শিল্পীর আহ্বান, 'যেখানেই থাকি না কেন, আমরা যেন শেকড়বিচ্ছিন্ন না হই। Let’s celebrate our roots wherever we are in the world!'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com