হেফাজতে ইসলাম নামধারী কিছু উগ্রপন্থি দেশে তাণ্ডব চালাচ্ছে: মন্ত্রী

প্রকাশ: ০৬ এপ্রিল ২১ । ১৮:৫১

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

ফাইল ছবি

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, হেফাজতে ইসলাম নামধারী কিছু উগ্রপন্থি দেশে তাণ্ডব চালাচ্ছে। তারা ধর্মকে ব্যবহার করে দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। হেফাজতে ইসলামের এক পক্ষ যখন দেশের বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডব চালাচ্ছে, তখন আরেক পক্ষ সংবাদ সম্মেলন করে বলছে আমরা এ তাণ্ডবের নিন্দা জানাই।

মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চা’বাগান এলাকায় কাজী সাইয়্যেদুল আলম উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ যে আজকে পৃথিবীতে উন্নয়নের রোল মডেল হয়েছে এটা তারা (হেফাজত) মেনে নিতে পারছে না। তাদের সাধের পাকিস্তান আজকে ব্যর্থ ও অকার্যকর রাষ্ট, আর বাংলাদেশ এত এগিয়ে যাবে এটা তারা মেনে নিতে পারছে না। তাই তারা বিভিন্ন ছুতা খুঁজে অকারণে আন্দোলন করছে। কিন্তু আল্লাহর মাইর দুনিয়ার বাইর। ইনশাল্লাহ, জাতি জানতে পারবে সব কিছু। হেফাজতের টাকার উৎস কোথায়। সেগুলো জাতির সামনে পরিষ্কার হবে। কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, দেশে সব মানুষ যার যার ধর্ম সে সে পালন করবে। আপনারা দেখেছেন ধর্মের নামে কত তাণ্ডব চালানো হয়েছে। অফিস আদালত পোড়ানো হয়েছে। ইউনও ও এসিল্যান্ডের অফিস পোড়ানো হয়েছে। সেখানকার অনেক ডকুমেন্ট পুড়িয়েছে। সেখানকার মানুষ হাহাকার করছে। যারা জনগণের ক্ষতি করে, তারা কারো বন্ধু হতে পারে না। আমরা আলেমদের অনুরোধ করবো, আপনারা আল্লাহর হুকুম সমন্ধে জনগণকে নসিহত করবেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা ব্যবস্থা পরির্বতন করেছি। এসব প্রাইমারি স্কুল ও হাই স্কুলগুলোকে আমরা চেষ্টা করেছি ৪তলা করে দেওয়ার জন্য এবং একইভাবে সকল মাদরাসা ও মসজিদগুলোর ভবন করে দিয়েছি। রাস্তা ঘাট সংস্কার করাসহ গ্রামে গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। বাড়ি বাড়ি সাবমার্সিবল পাম ২০২১ সাল থেকে বিতরণ করা হবে। বাংলাদেশে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবে না।

এ সময় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. সেলিম আজাদ, স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কাজী সাইয়্যেদুল আলম বাবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাসেল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. হিরু মিয়া, মধ্যপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নাছিম কবীর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com