পিছিয়ে যেতে পারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা

উপাচার্যদের বৈঠক ৫ মে

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২১ । ২১:০৪

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে চলমান লকডাউন আগামী ৫ মে পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। এটি আরও বাড়তে পারে। এ অবস্থায় দেশের সব স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পূর্বনির্ধারিত তারিখে আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার দিনক্ষণ পেছানো যায় কিনা, তা নিয়ে আগামী ৫ মে বৈঠক ডেকেছে উপাচার্যদের সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ। ওইদিন সকালে অনলাইনে এ বৈঠক হবে। 

শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির সভাপতি এবং চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

দেশে ৪৬টি স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় ও চারটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া বাকি ৩৯টিতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা করা হয়।

জানা গেছে, এবার তিনটি গুচ্ছে ২৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বাদে বাকিগুলোতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি নেবে। 

অধ্যাপক রফিকুল আলম সমকালকে বলেন, এরই মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। এ ছাড়া অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনও পেছানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ৫ মে উপাচার্যদের সভায় আলোচনা করে পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com