এক বছরে ৬২ হাজার ৫০০ শরণার্থী নেবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশ: ০৫ মে ২১ । ১০:৪০

অনলাইন ডেস্ক

ইথিওপিয়ার একটি ক্যাম্পে ইউএনএইচসিআরের দেওয়া ত্রাণ সহায়তা নিতে ইরিত্রীয় শরণার্থীদের লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষার ছবিটি গত ৩০ জানুয়ারি তোলা - এএফপি

চলতি অভিবাসীবর্ষে যুক্তরাষ্ট্রে ৬২ হাজার ৫০০ শরণার্থী গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, যা আগের সময়ের চেয়ে প্রায় চার গুণ বেশি। উদারনৈতিক ও মানবাধিকার গ্রুপগুলোর ক্রমাগত চাপে অভিবাসন ব্যবস্থা সামাল দিতে হিমশিম খাওয়ার মুখে এ ঘোষণা দিলেন বাইডেন। ১ সেপ্টেম্বর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনবর্ষ শুরু হয়।

গত সোমবার হোয়াইট হাউসের ঘোষণায় বলা হয়, নতুন অভিবাসনবর্ষ শুরু হওয়ার আগে ৬২ হাজার ৫০০ জনের আশ্রয় অনুমোদনের প্রক্রিয়া সম্ভব হবে কিনা, এ নিয়ে নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না। আগামী বছর থেকে বার্ষিক শরণার্থী গ্রহণের সংখ্যা এক লাখ ২৫ হাজার করার জন্য অভিবাসন বিভাগ কাজ শুরু করে দিয়েছে বলে জানানো হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় এসে বার্ষিক শরণার্থী গ্রহণের সংখ্যা সর্বোচ্চ ১৫ হাজারে সীমাবদ্ধ করে ছিলেন। ফলে সিরিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে বিপন্ন জনগোষ্ঠীর যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় গ্রহণ একদম সীমিত হয়ে পড়েছিল। যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনে রাজনৈতিক আশ্রয় গ্রহণ ও শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় পাওয়ার কর্মসূচি আলাদা।

বাইডেন গত ২০ জানুয়ারি ক্ষমতা গ্রহণ করেই বার্ষিক শরণার্থী গ্রহণের সংখ্যা বৃদ্ধি করবেন বলে জানান। পরে দ্রুত যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণের সীমান্ত পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে ওঠে। প্রতিদিন শিশুসহ নথিপত্রহীন হাজার হাজার লোকের আগমন ঘটতে থাকায় তা সামাল দিতে নতুন প্রশাসনকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। ফলে অবকাঠামো থেকে শুরু করে পুরো অভিবাসন বিভাগে পরিবর্তন আনতে হচ্ছে। রাজনৈতিক আশ্রয়সহ অভিবাসনের অন্য নাজুক এলাকাগুলোয় দ্রুততার সঙ্গে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বাইডেন প্রশাসনের ওপর উদারনৈতিকদের পক্ষ থেকে চাপ রয়েছে। এপ্রিল মাসের শুরুতে বাইডেন প্রথমে বলেছিলেন, চলতি বছর শরণার্থী গ্রহণ ১৫ হাজারেই সীমাবদ্ধ রাখবেন। সব সামাল দিয়ে পরের বছর থেকে তা বৃদ্ধি করা হবে।

উদারনৈতিক আইনপ্রণেতা ও মানবাধিকার গ্রুপগুলোর জোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ওই ঘোষণার দু'দিনের মধ্যে বাইডেন তার অবস্থান পরিবর্তন করেন। তখন জানানো হয়েছিল, ১৫ হাজারের সীমাবদ্ধতা উঠিয়ে দেওয়া হবে। তবে চলতি বছর কতজন শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়া সম্ভব হবে, তা তখন উল্লেখ করা হয়নি। খবর রয়টার্সের।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com