গণতন্ত্রের জন্য আন্দোলনের বিকল্প নেই: মান্না

প্রকাশ: ২৭ মে ২১ । ২০:৫১

সমকাল প্রতিবেদক

মাহমুদুর রহমান মান্না। ছবি: ফাইল

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, দেশের অর্থনীতি বিপর্যস্ত, গরিব আরও গরিব হচ্ছে, অনাহার-অর্ধাহার বেড়ে গেছে। বেড়েছে ধনবৈষম্য। এরই মধ্যে বিনা ভোটের এই সরকার জুলুম নির্যাতন আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে গণতন্ত্রের জন্য, বাঁচার জন্য আন্দোলনের বিকল্প নেই।

বৃহস্পতিবার তোপখানা রোডে নাগরিক ঐক্যের কার্যালয়ে দলটির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সভায় তিনি এসব বলেন।

সভায় রাজনৈতিক অবস্থান এবং দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আগামী ১ জুন নাগরিক ঐক্যের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের সিদ্ধান্ত ও কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। ওইদিন কেন্দ্রীয় কার্যালয় সকাল ৮টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং বিকেলে আলোচনা সভা ও সমাবেশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ছাড়া স্বাস্থ্য খাত, রাষ্ট্রীয় প্রণোদনা এবং অন্যান্য বিষয়ে দলের বিভিন্ন দাবি উপস্থাপন করা হয়।

সভায় মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, দেশ আজ এক ভয়ানক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। ১৪ মাসের বেশি করোনার অভিঘাতের পর এখন এর দ্বিতীয় এমনকি তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে বলে বলা হচ্ছে। অথচ পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমাদের এমন কোনো প্রস্তুতি নেই।

তিনি বলেন, গত ১৩ বছর ক্ষমতায় থাকার সময়ে আওয়ামী লীগ সরকার কখনও জনগণের কল্যাণে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। আগামীতেও তারা জনগণের দাবি পূরণে কোনো পদক্ষেপ নেবে না। এমন পরিস্থিতিতে তাদের ক্ষমতায় থাকার কোনো অধিকার নেই।

মান্না আরও দাবি করে বলেন, স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতি, অনিয়মের জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী, করোনাকালে দায়িত্ব পালন করা সব স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। এ ছাড়া সাংবাদিক রোজিনা ইসলামসহ করোনার সময় নানা আইনে আটক সব সাংবাদিকের মামলা প্রত্যাহার করে মুক্তি দিতে হবে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এবং অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট বাতিল করতে হবে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com