চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নীলাকাশ

দৌড়েই পারল না রিয়াল

০৭ মে ২১ । ০০:০০

স্পোর্টস ডেস্ক

ওয়ার্নারকে এভাবে ঘিরে ধরেও আটকাতে পারেননি রামোস-নাচোরা। চেলসির প্রথম গোলটি এসেছে জার্মান এই স্ট্রাইকারের হেডে- এএফপি

ঝড়ের পূর্বাভাস ছিল। কিন্তু গতিবেগ যে এতটা ভয়াবহ রূপ নেবে, বোধহয় ভাবেনি লস ব্লাঙ্কোসরা। তাই তো বুধবার রাতে স্টামফোর্ড ব্রিজে চেলসির সামনে রিয়াল মাদ্রিদকে মনে হয়েছে খড়কুটো। ব্লুজদের 'পাওয়ার ফুটবলে'ই উড়ে ল ভ জিনেদিন জিদানের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের তরী। প্রথম লেগে এক গোল খাওয়ার পর দ্বিতীয় লেগে গোলের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াল তিনের ঘরে। অবশ্য প্রথম লেগে এক গোল শোধও করেছিল রিয়াল। সব মিলিয়ে ফাইনালের টিকিট গেল চেলসির হাতে। এবার ফাইনালের অপেক্ষা। নীল-আকাশের ধ্রুপদী লড়াই উপভোগের পালা। ইস্তাম্বুলও নিচ্ছে সেই প্রস্তুতি। ২৯ মে যেখানটায় হবে কাঙ্ক্ষিত অল-ইংলিশ শিরোপা যুদ্ধ।

চেলসির মাঠে প্রথম ক'মিনিট বলটা রিয়ালের কথামতোই চলে। এরপর চেলসির কোর্টে। যেমন খুশি তেমন নাচিয়েছে ব্লুজরা। বলের নিয়ন্ত্রণ, লং পাস, ট্যাকেল কিংবা ক্ষুরধার আক্রমণ সবই ছিল দারুণ গোছানো আর কার্যকর। যদিও একটা জায়গায় চেলসিও ফুলমার্কস পায়নি। গোলমুখে সব মিলিয়ে ১৫টি শট নেয় তারা। যার মধ্যে কেবল পাঁচটি টার্গেটমতো যায়, তাও দুটি বাদে তিনটি একেবারে সাদাসিদে। সেজন্য গোলও মেলে দুটি। যেখানে রিয়াল প্রতিপক্ষ গোলমুখে ছিল একেবারে এলোমেলো। বল মাঝমাঠ থেকে টেনে নেওয়াই যেন কষ্টকর। সাতবার বল তাদের জাল বরাবর পাঠালেও কোনোটাই সফলতার মুখ দেখেনি। আক্রমণভাগের মূল তারকা করিম বেনজেমাও ছিলেন নিষ্প্রভ। পুরো সময় মাঠে থেকে দুই শট নিলেও কোনোটাই কাজে লাগেনি। মাঝমাঠ ছিল আরও দুর্বল। বল টেনে সামনে পাঠানোর আগেই ছোঁ মেরে চেলসির কাউন্টার অ্যাটাক রীতিমতো স্তব্ধ করে দেয় রিয়াল শিবিরকে। রক্ষণ যদিও প্রাণপণ চেয়েছিল চেলসি-ঝড় থামাতে; কিন্তু ২৮তম মিনিটে টিমো ওয়ার্নার রিয়ালকে পুরাই হতাশা করেন, এগিয়ে যায় চেলসি। আর শেষদিকে ম্যাসন মাউন্ট একেবারে ডুবিয়ে দেন চেলসির আশার ভেলা। ম্যাচ শেষে খোদ রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদানও চেলসিকে ক্রেডিট দিয়েছেন। তার দল ভালো খেলেছে তবে জয়টা যে চেলসির প্রাপ্য ছিল সেটা তিনিও বুঝেছেন।

চেলসির জন্য সামনে আরও বড় চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জ জয় করতে মরিয়া তারাও। কেননা অনেক দিন পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠছে ব্লুজ-চাঁদ। গুনে গুনে আট মৌসুম পর সেই চাঁদটা ধরতে চায় থমাস টুখেলের দল। তরুণ আর অভিজ্ঞদের নিয়ে গড়া দলটি রিয়ালকে যেভাবে কাত করেছে তাতে ফাইনালের আরেক দল ম্যানসিটিও চিন্তায় পড়ার কথা।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com