পাকা ধান নিয়ে শঙ্কায় কৃষক

০৯ মে ২১ । ০০:০০

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর এলাকার একটি ধানক্ষেত-সমকাল

কুমিল্লায় বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। ফলন হয়েছে ভালো। কিন্তু শ্রমিক সংকটের কারণে ধান কাটা নিয়ে দেখা দেয় নানা বিড়ম্বনা। তবে লকডাউন কিছুটা শিথিল হওয়া এবং সরকারিভাবে বাস পাঠিয়ে উত্তরাঞ্চল থেকে শ্রমিক আনায় এরই মধ্যে প্রায় ৮০ শতাংশ জমির ধান কাটা সম্ভব হয়েছে। ক্ষেতের পাকা ধান নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন স্থানীয় কৃষক। তবে হঠাৎ শিলা ও ঝড়-বৃষ্টি হলে মাঠে থাকা ধানের ক্ষতির আশঙ্কা করছে কৃষক ও জেলা কৃষি বিভাগ।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা যায়, এ বছর জেলায় বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। কুমিল্লা জেলায় এক লাখ ৫৮ হাজার ৮৮০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদ হয়েছে, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৫০ হেক্টর বেশি। জেলায় এ পর্যন্ত ৮০ শতাংশ ধান কাটা হয়েছে। কৃষকদের ধান কাটায় সহযোগিতা করার জন্য ৮৫টি কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন ও ৭৯টি রিপার মাঠ পর্যায়ে পাঠানো হয়েছে। করোনা ও লকডাউনের কারণে এ বছর দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে শ্রমিক এলেও যা ছিল অন্যান্য বছরের তুলনায় অনেক কম। পরে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাস পাঠিয়ে উত্তরাঞ্চল থেকে কিছু শ্রমিক আনা হয়। মৌসুমের শুরুতে পর্যাপ্ত শ্রমিক না পাওয়ায় যাদের ধান আগে পেকে গেছে, তারা অনেকেই দ্বিগুণ দামে শ্রমিক রেখে ধান ঘরে তুলেছেন।

কুমিল্লা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মিজানুর রহমান বলেন, কুমিল্লায় এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। ধান কাটার অনেক যন্ত্রপাতি মাঠে পাঠানো হয়। মাঠ পর্যায় থেকে প্রাপ্ত তথ্যে এ পর্যন্ত প্রায় ৮০ শতাংশ ধান কাটা সম্ভব হয়েছে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com