ফুলবাড়ী হাসপাতাল

অ্যাম্বুলেন্স চলে না চার মাস

১৮ মে ২১ । ০০:০০

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

উপজেলা হাসপাতালের গ্যারেজে পড়ে আছে দুটি অ্যাম্বুলেন্স-সমকাল

চুরির অপরাধে বরখাস্ত হয়েছেন ফুলবাড়ী উপজেলা হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সচালক। তাই চার মাস ধরে তালাবদ্ধ অবস্থায় গ্যারেজে রয়েছে দুটি অ্যাম্বুলেন্স। এ অবস্থায় মুমূর্ষু রোগীকে জেলা সদরসহ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

উপজেলা হাসপাতাল কোয়ার্টারে ১৩ জানুয়ারি তৎকালীন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামছুন্নাহারসহ দুই ডাক্তারের বাসায় চুরি হয়। কোয়ার্টারের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার অপরাধে চারজনকে আটক করে পুলিশ। এর মধ্যে অ্যাম্বুলেন্সচালক একাব্বর আলীকেও আটক করা হয়। পরে পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করে অভিযুক্তদের কুড়িগ্রাম জেলহাজতে পাঠানো হয়। আটক অ্যাম্বুলেন্সচালক একাব্বর আলীকে ওই তারিখে সাময়িক বরখাস্ত করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সেই থেকে গ্যারেজে তালাবদ্ধ অবস্থায় পড়ে আছে অ্যাম্বুলেন্স দুটি।

নাওডাঙ্গা স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল হানিফ সরকার জানান, কয়েক দিন আগে আমার প্রতিবেশী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন। তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার জন্য ফুলবাড়ী হাসপাতালে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু চালক না থাকায় অ্যাম্বুলেন্সটি পাওয়া যায়নি। পরে ৩ হাজার টাকায় মাইক্রোবাস ভাড়া করে রোগী নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোস্তফা কামাল জানান, চালক একাব্বর আলী জামিনে মুক্ত হলেও তার বরখাস্ত আদেশ তুলে না নেওয়া পর্যন্ত তাকে দিয়ে অ্যাম্বুলেন্স চালানোর বিধান নেই। তবে অ্যাম্বুলেন্সচালকের বিষয়টি মৌখিক ও লিখিতভাবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

ফুলবাড়ীর ইউএনও সুমন দাস জানান, তিনি নতুন এসেছেন। হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্সচালক না থাকার বিষয়টি এখন পর্যন্ত কেউ তাকে জানায়নি। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com