সমীকরণ মেলানোর পালা

অ্যালিসনের হেডে লিভারপুলের লাইফলাইন

১৮ মে ২১ । ০০:০০ | আপডেট: ১৭ মে ২১ । ২৩:১৯

হেডের মাধ্যমে গোল করে লিভারপুলকে জয় এনে দেন গোলরক্ষক অ্যালিসন- এএফপি

করোনা-শঙ্কা নিয়ে শুরু হওয়া ইউরোপীয় ফুটবলের ২০২০-২১ মৌসুম অবশেষে শেষের পথে। শীর্ষ ৫ লিগের চারটিতে বাকি ১ রাউন্ড করে, একটিতে ২ রাউন্ড। গ্যালারিতে দর্শক উপস্থিতি না থাকলেও মাঠের খেলায় ছিল তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ। যে কারণে লিগের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দুটি শিরোপার নিষ্পত্তি বাকি। যে তিনটি এরই মধ্যে চ্যাম্পিয়ন পেয়ে গেছে, সেখানে বুন্দেসলিগায় বায়ার্ন মিউনিখ বাদে বাকি দুটিতে নতুন চ্যাম্পিয়ন; প্রিমিয়ার লিগে ম্যানসিটি আর সিরি-এ'তে ইন্টার মিলান। নতুন চ্যাম্পিয়নের অপেক্ষায় লা লিগা আর লিগ ওয়ানও

রেফারির দেওয়া ইনজুরি টাইমও ততক্ষণে শেষ। যে কোনো মুহূর্তে বাজবে সমাপ্তির বাঁশি। ওয়েস্টব্রমের বিপক্ষে কর্নার পেল লিভারপুল। একা একা গোলপোস্টে না দাঁড়িয়ে থেকে অ্যালিসন চলে গেলেন প্রতিপক্ষের ডি বক্সে। আর সেখানেই গড়ে ফেললেন ইতিহাস। প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসে প্রথম গোলরক্ষক হিসেবে জয়সূচক গোল করে ফেললেন। হেডে ওয়েস্টব্রমের জালে বল জড়িয়ে অ্যালিসন শুধু ব্যক্তিগত রেকর্ডই গড়লেন না, লিভারপুলকেও দিলেন বড় প্রাপ্তির আনন্দ। তার শেষ মুহূর্তের ওই গোলে ২-১ স্কোরলাইনে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে অলরেডরা, যে পয়েন্টের সুবাদে এখন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। ৩৬ রাউন্ড শেষে লিভারপুলের পয়েন্ট এখন ৬৩, এক ধাপ ওপরে থাকা চেলসির সঙ্গে ব্যবধান কমে এসেছে ১ পয়েন্টে। এমন মহামূল্যবান পয়েন্ট এনে দেওয়া গোলের পর অ্যালিসনকে নিয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত লিভারপুলের টিম ম্যানেজমেন্ট ও সমর্থকরা। আনন্দিত এই ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক নিজেও। তবে ফেব্রুয়ারিতে মারা যাওয়া পিতাকে স্মরণ করে অনেক বেশি আবেগাপ্লুত তিনি, 'বাবার হাত ধরে আমার ফুটবল খেলা। আশা করছি আজকের এই গোল তিনি দেখেছেন। স্রষ্টার সঙ্গে নিশ্চয়ই উদযাপন করছেন। আর দলকে সহায়তা করতে পেরেছি বলে খুবই আনন্দিত। এর চেয়ে বেশি আনন্দিত হতে পারতাম না।'

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com