আসামি ছিনতাই মামলা

দাসিয়ারছড়ার টংকার মোড় পুরুষশূন্য

১৮ জুন ২১ । ০০:০০

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

পুলিশের কাছ থেকে আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা করায় গ্রেপ্তারের ভয়ে বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ার টংকার মোড় এলাকা পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। বন্ধ রাখা হয়েছে ওই বাজারের দোকানপাট। মামলার ভয়ে গা-ঢাকা দিয়েছে সাধারণ মানুষও।

৬ জুন রাতে বিলুপ্ত দাছিয়ারছড়া ছিটমহলের টংকার মোড় এলাকার আফছার আলীর ছেলে মিন্টু মিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন এবং যৌতুক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। ওই মামলায় ফুলবাড়ী থানার এ এস আই আনোয়ার হোসেন ও এএসআই বিদাস সাদা পোশাকে টংকার মোড়ে গিয়ে মিন্টু মিয়াকে আটক করেন। এরপর মিন্টুকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন বাজারের উৎসুক জনতা। পুলিশ সদস্যরা তাদের পরিচয় দেওয়ার পরও ধাক্কাধাক্কি ও মারধর করা হয় তাদের। এ সময় আহত হন দুই পুলিশ সদস্য। ওই সময় কৌশলে হ্যান্ডকাপসহ পালিয়ে যান মিন্টু। পরে ফুলবাড়ী থানার অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হ্যান্ডকাপ উদ্ধারসহ ৪ জনকে আটক করে। পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অপরাধে ফুলবাড়ী থানায় ২০ জন নামে ও অজ্ঞাত ৩০-৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। পরে বাড়ি তল্লাশি করে আরও ৫ জনকে আটক করা হয়। এমন পরিস্থিতিতে আতঙ্কে পুরুষশূন্য হয়ে পড়ে ওই এলাকা। বন্ধ হয়ে যায় বাজারের দোকানপাট। মামলার ভয়ে গা-ঢাকা দেয় গ্রামবাসী। সন্ধ্যার পর বন্ধ হয়ে যায় বিদ্যুতের আলো। থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে ওই এলাকায়।

ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটির বাংলাদেশ ইউনিটের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা জানান, আমরা চাই প্রকৃত দোষীদের ধরা হোক। কিন্তু নিরীহ ও সাধারণ মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় পুলিশ কর্মকর্তাদের সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে অনুরোধ করা হয়েছে।

ওসি রাজীব কুমার রায় জানান, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অপরাধে ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে নিরীহ মানুষকে কোনো হয়রানি করা হচ্ছে না।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com