ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ‘আত্মহত্যা’ ঋণগ্রস্ত ফ্রিল্যান্সারের

প্রকাশ: ০১ জুন ২১ । ২৩:৪০

রাজশাহী ব্যুরো

আনারুল ইসলাম টুটুল- ফাইল ছবি

রাজশাহীতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে এক ফ্রিল্যান্সার আত্মহত্যা করেছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পুলিশ তার আত্মহত্যার খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠায়।

নিহতের নাম আনারুল ইসলাম টুটুল। তিনি নগরীর হোসেনীগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।

বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মণ জানান, রোববার রাত ৩টার পরে যেকোনো সময় তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ফ্রিল্যান্সারের কাজ করতে তিনি সারা রাত জেগে সকালে ঘুমাতেন, তাই বাড়ির লোকজনও দেরিতে জানতে পেরে পুলিশে খবর দেন।

তিনি জানান, সকালে বাড়ির লোকজন মনে করেছেন, তিনি ঘুমাচ্ছেন। কিন্তু বেলা ১১টার পরও যখন ঘুম থেকে উঠছে না তখন ঘরের দরজায় নক করেন। তখনও সাড়া না দিলে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। তার তিন ছেলেমেয়ে রয়েছে। তিনি অনেক ঋণগ্রস্ত ছিলেন।

মারা যাওয়ার আগে রোববার রাত ১১টা ১৩ মিনিটে আনরুল ইসলাম তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, তিনি ফ্রিল্যান্সিং করে অনেক টাকা আয় করতেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় অসুস্থতার কারণে তিনি ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন। আবার কিছুটা সুস্থ হয়ে তিনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করেন। কিন্তু তিন মাস যেতে না যেতেই তিনি আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন। এইজন্য তাকে কাজ বন্ধ রাখতে হয়।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি দাবি করেন, রেক্স আইটির আব্দুস সালাম  পলাশের কাছে তিনি ১৭ লাখ টাকা পেতেন। পলাশ তার টাকা দেয়নি। কয়েক হাজার কোটি টাকা প্রতারণা করে পলাশ হাজারো পরিবার শেষ করে দিয়েছে। কিছুদিন আগে পলাশকে সিআইডি পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। একারণে পরিবারে ব্যাপক অভাব-অনটন দেখা দেয়। এসব কারণেই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

দেশবাসীকে তার পরিবারের পাশে থাকার আহ্বান জানান আনারুল হক টুটুল। আত্মহত্যার আগে নিজের ফেসবুক পড়ার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ করেন।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২২

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মোজাম্মেল হোসেন । প্রকাশক : আবুল কালাম আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com