অন্তঃসত্ত্বা তরুণীর মরদেহ উদ্ধার, পরিবারের দাবি হত্যা

প্রকাশ: ১৭ জুন ২১ । ১৫:০৮

 নগরকান্দা(ফরিদপুর)প্রতিনিধি

মারা যাওয়া গৃহবধূর স্বজনদের আহাজারি

ফরিদপুরের নগরকান্দায় মুক্তি আক্তার (২৫) নামের অন্তঃসত্ত্বা এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা হাসপাতাল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মারা যাওয়া মুক্তি আক্তার নগরকান্দা পৌর এলাকার বালিয়া গ্রামের কামরুল আলমের দ্বিতীয় স্ত্রী এবং মিরাকান্দা গ্রামের বিল্লাল ফকিরের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কামরুল চার মাস আগে পরিবারের অগোচরে মুক্তি আক্তারকে বিয়ে করেন। কামরুলের প্রথম স্ত্রী এই বিয়ে মেনে না নেওয়ায় কামরুল মুক্তিকে নিজ বাড়িতে নিতে পারেননি। এ কারণে কামরুল তার দ্বিতীয স্ত্রীকে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় অস্থায়ীভাবে অবস্থান করতেন। পাঁচ দিন আগে উপজেলার চাঁদহাট গ্রামে কামরুল মুক্তিকে নিয়ে তার খালাতো ভাই ফরিদ মুন্সীর বাড়িতে বেড়াতে যান। বুধবার রাত ১০টার দিকে ঘরের আড়ায় সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

মুক্তির বাবা বিল্লাল ফকিরের অভিযোগ, তার মেয়ে আত্মহত্যা করেনি, তাকে হত্যা করা হয়েছে। মুক্তি দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলেও জানান তিনি।

বাড়ির মালিক ফরিদ মুন্সী জানান, রাতের খাবার শেষে দক্ষিণ পাশের ঘরে কামরুল ও মুক্তি ঘুমাতে যায়। রাত ১০টার দিকে হঠাৎ কামরুল চিৎকার দিয়ে জানায় মুক্তি গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলছে। পরে মুক্তিকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নগরকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা বিপ্লব বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com