প্রেম চেয়ে ব্যর্থ, রাতে বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণ

প্রকাশ: ২১ জুন ২১ । ১৫:০৫

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় এক মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি ঘটনা এ ঘটনায় রোববার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা করেছেন।

আসামিরা হলো- উপজেলার বাঙ্গালা ইউনিয়নের গাড়াবাড়ি গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে নাঈম খান (১৬), একই গ্রামের মোকবেল হোসেনের ছেলে মো. রেজাউল করিম (৫০),  রেজাউল করিমের স্ত্রী মোছা. নাজমা খাতুন (৪৫), শুকুর মাহমুদের ছেলে মো. আলী আহম্মেদ (১৮) ও মো. রেজাউল করিমের ছেলে মো. নাসির উদ্দিন (২৫)।

উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আলাল হোসেন জানান, মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করতো নাঈম খান।অনেকদিন তাকে প্রেমের প্রস্তাবও দেয় সে।এতে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীর ওপর ক্ষুব্ধ হয় নাঈম।

তিনি জানান, কয়েকদিন আগে ওই মাদ্রাসাছাত্রীর মা ও বাবা তাদের আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে গেলে নাঈম রাত ১১ টার দিকে তাদের বাড়িতে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় জাপটে ধরে চিৎকার শুরু করেন ওই ছাত্রী। এ সময় পার্শ্ববর্তী বাড়ির লোকজন নাঈমকে আটক করে।

এসআই জানান, পরে নাঈমের সঙ্গীরা উপযুক্ত বিচার করার কথা বলে তাকে ছাড়িয়ে নেয়। কিন্তু কোনও বিচার দিতে পারেনি কেউ। এ অবস্থায় রোববার ছাত্রীর মা উল্লাপাড়া থানায় বাদী হয়ে ওইসব ব্যক্তিদের নামে ধর্ষণ মামলা করেন।

তিনি জানান, পুলিশ এরই মধ্যে ওই ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা শেষ করেছে। ধর্ষণে অভিযুক্ত ও তার সঙ্গীরা পালিয়ে থাকায় এখনও তাদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশ এদেরকে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।


© সমকাল ২০০৫ - ২০২১

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

টাইমস মিডিয়া ভবন (৫ম তলা) | ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৫৫০২৯৮৩২-৩৮ | বিজ্ঞাপন : +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ | ই-মেইল: samakalad@gmail.com